fbpx
কলকাতাহেডলাইন

মন্ত্রী হচ্ছেন শান্তনু-নিশীথ-সুভাষ!

জল্পনা তুঙ্গে! একুশের লক্ষ্যে মোদি মন্ত্রিসভায় প্রাধান্য বাংলাকে

নিজস্ব প্রতিনিধি, কলকাতা: একুশের লক্ষ্যে মোদির মন্ত্রিসভায় বাংলার প্রতিনিধিত্ব বাড়তে চলেছে! বিজেপির অন্দরে এমনই জল্পনা তুঙ্গে। প্রধানমন্ত্রী মোদির দ্বিতীয় মেয়াদেও সরকার গঠনের প্রায় দেড় বছর পরে নভেম্বরেই মন্ত্রিসভার রদবদল হতে চলেছে। সূত্রের খবর, একুশের নির্বাচনের আগে তৃণমূলকে চাপে ফেলতে এবার বাংলা থেকে তিনজন মন্ত্রী আসতে পারেন মোদির টিমে। নয়া মন্ত্রী হিসাবে নাম ভাসছে বনগাঁর সাংসদ শান্তনু ঠাকুর, কোচবিহার নিশীথ প্রামনিক এবং বাঁকুড়ার সুভাষ সরকার।

বাংলা থেকে এই মুহুর্তে কেন্দ্রীয় মন্ত্রীসভায় বাবুল সুপ্রিয় এবং দেবশ্রী চৌধুরী আছেন। বাংলায় জনজাতি বিশেষত রাজবংশী ও আদিবাসী এবং মতুয়া ভোটকে আরও সংহত করার লক্ষে শান্তনু ঠাকুর, নিশীথ প্রামানিকের মন্ত্রীসভায় আসার সম্ভবনা প্রবল রয়েছে। এর পাশাপাশি জঙ্গলমহলের বাঁকুড়া থেকে জয়ী দলের দীর্ঘদিনের নেতা সুভাষ সরকারও এই তালিকায় আছেন বলে সূত্রের খবর। এর পাশাপাশি বালুরঘাটে সুকান্ত মজুমদার, জলপাইগুড়ির জয়ন্ত রায়, ঝাড়গ্রামের কুনার হেমব্রম এবং আলিপুরদুয়ারের জন বারলার নামও শোনা যাচ্ছে।

বিজেপির এক ব্যক্তি ও এক পদ নীতি অনুসারে যেসব সাংসদ ইতিমধ্যে সংগঠনের বিভিন্ন মোর্চা এবং রাজ্য কমিটিতে স্থান পেয়েছেন তাঁদের কেন্দ্রে মন্ত্রী হওয়ার কোনও সম্ভবনা নেই। সেক্ষেত্রে যাঁদের নাম উঠে আসছে তাঁরা ইতিমধ্যে শুধু সাংসদ হিসাবেই দলে অবস্থান করছেন। একুশের নির্বাচনে তাঁদের অলআউট ব্যবহার করতে চাইছে কেন্দ্রীয় বিজেপি নেতৃত্ব। এর মধ্য দিয়ে মতুয়া,রাজবংশী এবং আদিবাসী নেতৃত্বকে মন্ত্রীসভায় এনে একুশের ভোটের আগে বাংলার প্রতিটি জনগোষ্টির মনজয় করার সুযোগ ছাড়তে নারাজ গেরুয়া শিবির।

 

Related Articles

Back to top button
Close