fbpx
পশ্চিমবঙ্গহেডলাইন

আমফানের ক্ষতিপূরণ না পেয়ে মুখ্যমন্ত্রীর দ্বারস্থ শিখা বিশ্বাস

পরিমল দে, বসিরহাট : আমফানের ক্ষতিপূরণের দাবিতে এবার মুখ্যমন্ত্রীর দ্বারস্থ হলেন বাদুড়িয়ার চাতরা গ্রামের বাসিন্দা শিখা বিশ্বাস নামে এক মহিলা।

জানা যায় বাদুড়িয়ার উত্তর চাতরা গ্রামের বাসিন্দা অর্ধেন্দু বিশ্বাসের স্ত্রী শিখা বিশ্বাস একজন স্বনির্ভর গোষ্ঠীর মহিলা। আমফানের ক্ষতির মুখে পড়েন ওই মহিলার পরিবার। সরকারি নির্দেশ অনুযায়ী সমস্ত প্রমাণ পত্র দিয়ে স্থানীয় পঞ্চায়েত সদস্যের কাছে ক্ষতিপূরণের আবেদন জানানো হয়েছিল মহিলার পরিবারের পক্ষ থেকে। কিন্তু ক্ষতিপূরণের টাকা না আসার শেষ পর্যন্ত মুখ্যমন্ত্রী দ্বারস্থ হন এই মহিলা।

মুখ্যমন্ত্রীর কাছে লেখা চিঠিতে নিজের ক্ষতির ব্যাখ্যা দেওয়ার পাশাপাশি গ্রামের অনেক পাকা বাড়ি আছে এমন বাড়িতেও ক্ষতিপূরণ এসেছে বলে উল্লেখ করেন তিনি। পাকা ছাদ দেওয়া বাড়িতে ক্ষতিপূরণ দেওয়া হলেও গ্রামের বহু দুঃস্থ খেটে খাওয়া মানুষের নাম ক্ষতিপূরণের তালিকায় রাখা হয়নি বলে অভিযোগ তোলেন।

গত কয়েকদিন আগেই সরুপনগর ও বাদুড়িয়া এলাকার বিভিন্ন গ্রামে টানানো হয়েছে ক্ষতিগ্রস্তদের নামের তালিকা। সেই নামের তালিকা থেকে উঠে এসেছে একাধিক গরমিল। গ্রামের দুঃস্থ মানুষের নাম ক্ষতি পূরণের তালিকা নাথাকলেও সেই তালিকায় নাম রয়েছে পঞ্চায়েতের দায়িত্বে থাকা একাধিক জনপ্রতিনিধি ও তাদের পরিবারের সদস্যদের নাম।

অথচ দরিদ্র ও স্বনির্ভর গোষ্ঠীর মাধ্যমে হাঁস-মুরগি পালনের মধ্য দিয়ে দিনযাপন করছেন এমন ক্ষতিগ্রস্তদের নাম রাখা হয়নি ক্ষতিগ্রস্তদের তালিকায়। আর সে কারণেই ক্ষতিপূরণের আবেদন জানিয়ে চিঠির মাধ্যমে মুখ্যমন্ত্রীর দ্বারস্থ হন বাদুড়িয়ার উত্তর চতরা গ্রামের বাসিন্দা স্বনির্ভর গোষ্ঠীর মহিলা শিখা বিশ্বাস।

Related Articles

Back to top button
Close