fbpx
আন্তর্জাতিকগুরুত্বপূর্ণহেডলাইন

কিমের কান্ড! করোনা দেখলেই ‘শুট টু কিল’ অর্ডার উত্তর কোরিয়ার

যুগশঙ্খ ডিজিটাল ডেস্ক: সুকুমার রায়ের আজব আইন কবিতাটি আমরা কমবেশি সকলেই পড়েছি। কিন্তু বাস্তবে এমন আইন রয়েছে তাবো ধায় উত্তর কোরিয়া না থাকলে কিংবা কিম জং না থাকলে জানাই যেত না। এখনও পর্যন্ত উত্তর কোরিয়ার দাবি,  একজনও করোনাভাইরাসে সংক্রমিত হননি সেদেশে। মার্কিন সেনাবাহিনীর এক কম্যান্ডারের দাবি, চিন থেকে যাতে উত্তর কোরিয়ায় করোনা না ঢোকে, সেজন্য শুট টু কিল-এর অর্ডার দেওয়া হয়েছে। অর্থাৎ করোনা আক্রান্ত কাউকে দেখলেই গুলি করবে উত্তর কোরিয়ার নিরাপত্তারক্ষীরা। উত্তর কোরিয়ার স্বাস্থ্যব্যবস্থার হাল খুবই খারাপ। অতিমহামারীর মোকাবিলা করা সেদেশের পক্ষে সম্ভব নয়। তাই করোনা আক্রান্তদের হত্যা করার সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়েছে।

গত জানুয়ারিতেই করোনা ঠেকানোর জন্য উত্তর কোরিয়া চিনের সীমান্ত সিল করে দেয়। জুলাইতে সরকার নিয়ন্ত্রিত মিডিয়া জানিয়েছে, সতর্কতা সর্বোচ্চ সীমা অবধি বাড়ানো হয়েছে। ইউএস ফোর্সের কোরিয়ার কম্যান্ডার রবার্ট আবরামস জানিয়েছেন, চিনের সীমান্ত সিল করার ফলে উত্তর কোরিয়ায় চোরাকারবার বৃদ্ধি পেয়েছে। বাধ্য হয়ে এব্যাপারে হস্তক্ষেপ করেছে সরকার।

ওয়াশিংটনে সেন্টার ফর স্ট্র্যাটেজিক অ্যান্ড ইন্টারন্যাশনাল স্টাডিজের অনলাইন কনফারেন্সে আবরামস বলেন, “করোনা ঠেকাতে উত্তর কোরিয়া নতুন বাফার জোন তৈরি করেছে। চিনের সীমান্ত থেকে এক-দুই কিলোমিটার জায়গা সেই বাফার জোনের অন্তর্গত। সেখানে মোতায়েন করা আছে নর্থ কোরিয়ান স্পেশ্যাল অপারেশনস ফোর্স। তাদের শুট টু কিল অর্ডার দেওয়া হয়েছে।”

Related Articles

Back to top button
Close