fbpx
আন্তর্জাতিকআমেরিকাহেডলাইন

হোয়াইট হাউসের সামনে গুলি, সরানো হল ডোনাল্ড ট্রাম্পকে

যুগশঙ্খ ডিজিটাল ডেস্ক: মার্কিন প্রেসিডেন্টের সাংবাদিক বৈঠকের সময় হোয়াইট হাউসের বাইরে সন্দেহভাজন দুষ্কৃতীর আনাগোনা। সন্দেহের বশে এক ‘সশস্ত্র’ দুষ্কৃতীকে গুলি করলেন ডোনাল্ড ট্রাম্পের নিরাপত্তারক্ষীরা। হোয়াইট হাউসের বাইরের এই কাণ্ডকারখানার জন্য সোমবার বেশ কিছুক্ষণ সাংবাদিক বৈঠক বন্ধ রাখতে হল মার্কিন প্রেসিডেন্টকে। পরে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে এলে তিনি আবার ফিরে আসেন।

আমেরিকায় বর্ণবিদ্বেষ বিরোধী আন্দোলনের পর থেকেই প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্পের নিরাপত্তা নিয়ে একাধিকবার প্রশ্ন উঠেছে। বর্ণবিদ্বেষ বিরোধী আন্দোলন যখন তীব্র তখন একবার হোয়াইট হাউসের বাঙ্কারে সরাতে হয়েছিল তাঁকে। তারপর অবশ্য হোয়াইট হাউসের সামনে দুষ্কৃতীর আনাগোনার খবর আর শোনা যায়নি। কিন্তু সোমবারের ঘটনা নিঃসন্দেহে মার্কিন প্রেসিডেন্টের নিরাপত্তা নিয়ে প্রশ্ন তুলেছে। যদিও ট্রাম্প নিজে বলছিলেন, তাঁর আশেপাশে সিক্রেট সার্ভিসের আধিকারিকরা থাকলে তিনি অনেকটা নিশ্চিন্ত বোধ করেন।

আরও পড়ুন: ভয়াবহ বিস্ফোরণের জের…পদত্যাগ-এর সিদ্ধান্ত লেবানন সরকারের

অন্যদিনের মতোই সোমবার হোয়াইট হাউসের ব্রিফিং রুমে চিন, করোনা এবং রাশিয়া নিয়ে সাংবাদিকদের সামনে বক্তব্য রাখছিলেন মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প । সাংবাদিক বৈঠক চলাকালীন আচমকা সিক্রেট সার্ভিসের  এক আফিসার এসে ট্রাম্পের কানে কানে কিছু বলেন। আর তারপরই সেখান থেকে তাঁকে দ্রুত সরিয়ে নিয়ে যাওয়া হয়। বন্ধ করে দেওয়া হয় ব্রিফিং রুম। জানা যায় নিরাপত্তার কারণে মার্কিন প্রেসিডেন্টকে সরানো হয়েছে। কিছুক্ষণ পরই অবশ্য সাংবাদিক বৈঠকে ফিরে আসেন ট্রাম্প। জানান, হোয়াইট হাউসের সামনে গুলি চলেছে। এক সন্দেহভাজন ব্যক্তিকে গুলি করেছে সিক্রেট সার্ভিসের সদস্যরা। ওই ব্যক্তির আছে অস্ত্র ছিল বলেও দাবি করা হয় মার্কিন সিক্রেট সার্ভিসের তরফে। যদিও ঠিক কী উদ্দেশ্যে সে হোয়াইট হাউসের কাছে গিয়েছিল, তা স্পষ্ট নয়। তাঁকে হাসপাতালে ভরতি করা হয়েছে।

Related Articles

Back to top button
Close