fbpx
পশ্চিমবঙ্গহেডলাইন

মহাত্মা গান্ধীর আবক্ষমূর্তি তৈরি করবে না শিলিগুড়ি পুরনিগম, পরিস্কার জানিয়ে দিলেন প্রশাসক

কৃষ্ণা দাস, শিলিগুড়ি: মহাত্মা গান্ধীর আবক্ষমূর্তি আর তৈরি করছে না শিলিগুড়ি পুরনিগম। শিলিগুড়ি পুরনিগমের প্রশাসক অশোক ভট্টাচার্য মঙ্গলবার সাংবাদিক সম্মেলন করে তা পরিস্কার জানিয়ে দিলেন। সোমবার পর্যটন মন্ত্রী গৌতম দেব জানান মহাত্মা গান্ধীর আবক্ষমূর্তি উন্মোচন করতে আসতে পারেন পুর ও নগোরন্নয়ন মন্ত্রী ফিরহাদ হাকিম। তারপর দিনই তাৎপর্যপুর্ণভাবে মহাত্মা গান্ধীর আবক্ষমূর্তি তৈরি করা থেকে পিছু হটল শিলিগুড়ি পুরনিগম।

সম্প্রতি শিলিগুড়ি পুরনিগমের তরফে শিলিগুড়ির বেশকিছু রাস্তা ও মোড়ের নতুন নামকরণ করা হয়েছে। তার মধ্যে এয়ারভিউ মোড়কে নতুন নামকরণ করে গান্ধী মোড় করা হয়েছে। মহাত্মা গান্ধীর আবক্ষমূর্তি তৈরি করে এই মোড়ে বসানোর পরিকল্পনা নেয় পুরনিগম। গান্ধীজির দেড়শত তম জন্মবার্ষিকী উপলক্ষ্যে ২ অক্টোবর সেই আবক্ষমূর্তি উন্মোচন করা হবে বলেও সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়। পুরনিগমের তরফে কিন্তু যে জায়গায় মূর্তি বসানোর পরিকল্পনা নেওয়া হয়েছে সেখানে পর্যটন দফতরের কিছু পরিকল্পনা রয়েছে বলে বাধা দেওয়া হয় ও পুরনিগমের বিরুদ্ধে এফআইআরও করা হয়। পুরনিগমের তরফে তখন গান্ধী মূর্তি বসানোর জন্য স্থান পরিবর্তন করে শিলিগুড়ির কোর্ট মোড় সংলগ্ন প্রধান ডাকঘরের সামনে সেই মূর্তি বসানোর পরিকল্পনা নেওয়া হয়। কিন্তু সেখানেও বাধা দেয় শাসক দল। রাজ্য সরকার থেকে অনুমতি না নিয়ে রাজ্য সরকারের জায়গায় মূর্তি তৈরির অভিযোগ তোলা হয়।

শিলিগুড়ি পুরনিগমের প্রশাসক অশোক ভট্টাচার্য সম্প্রতি জোড় গলায় বলেছিলেন, এবার বাধা দিলেও মূর্তি তারা বসাবেনই। পরে অবশ্য তিনি রাজ্য সরকারের কাছে মূ্তি বসানোর জন্য আবেদন জানান। তবে সোমবার পর্যটন মন্ত্রী গৌতম দেব জানান ২ তারিখ মহাত্মা গান্ধীর আবক্ষমূর্তি উন্মোচন করতে আসতে পারেন পুর ও নগোরন্নয়ন মন্ত্রী ফিরহাদ হাকিম। তিনি এসে আবক্ষমূর্তি উন্মোচন করবে। পাশাপাশি তিনি এটাও জানান অশোক ভট্টাচার্য রাজ্য সরকারের কাছে অনুমতি চেয়েছিলেন দুএকদিনেই অনুমতি দেওয়া হবে।

ফিরহাদ হাকিম আসার কথা শোনার পরদিনই অশোক ভট্টাচার্য বলেন, “অনুমতি না পাওয়ার কারণে আমরা আর মহাত্মাগান্ধীর মূর্তি করবই না। মহাত্মা গান্ধীর সাথে যতই আমাদের মত পার্থক্য থাকুক না কেন আমরা তাকে নিয়ে টানা হেঁচরা ও তাকে অপমান সইতে পারব না। তবে আগামী ২৬ সেপ্টেম্বর নবজাগরের প্রতিক রাজা রামমোহন রায়, মাইকেল মধুসূদন দত্ত, অক্ষয়কুমার, ঠাকুর পঞ্চানন বর্মা, ডিরেজিও আবক্ষমুর্তি আনুষ্ঠানিক ভাবে বিভিন্ন জায়গায় উদন্মোচন করা হবে।”

তিনি আরও বলেন, “মহাত্মা গান্ধীর মূর্তি তৈরীর বিষয়ে রাজ্য সরকার থেকে ইতিবাচক সাড়া পায়নি। সরকার অসহযোগিতা করছে এটা দুভাগ্য জনক।” পুরনিগমের আচমকা এই সিদ্ধান্তে শহরবাসী মনে করছে বাম পরিচালিত পুরনিগমের তৈরী মহাত্মাগান্ধীর আবক্ষমূর্তি পুর ও নগোরন্নয়ন মন্ত্রী উদ্বোধন করতে এলে বামেদের পরিবর্তে তৃণমূলের ভোটবাক্স বৃদ্ধি পেতে পারে তাই অতি সুকৌশলে পুরনিগম মহাত্মা গান্ধীর মূর্তি তৈরি করবে না বলে সিদ্ধান্ত নেয়।

Related Articles

Back to top button
Close