fbpx
দেশবিনোদনহেডলাইন

‘‘সকল ধর্মের মানুষ একজোট হয়ে মুখ্যমন্ত্রীকে সাহায্য করুন’’, আর্জি লতা মঙ্গেশকরের

যুগশঙ্খ ডিজিটাল ডেস্ক: করোনা প্রাণ কাড়ছে বহু মানুষেরই। বিভিন্ন রাজ্যের পাশাপাশি মহারাষ্ট্রে বেড়েই চলেছে করোনা আক্রান্তের সংখ্যা ৷ বাড়ছে মৃত্যুর সংখ্যাও ৷ বলতে গেলে দেশে কোভিড-১৯ আক্রান্তের সংখ্যার বিচারে মহারাষ্ট্রই সর্বাধিক ৷ তাই এই রাজ্যকে করোনার ভরকেন্দ্রই বলা হচ্ছে এখন ৷ মুখ্যমন্ত্রী উদ্ধব ঠাকরে বলেন, ‘‘ মহারাষ্ট্রের করোনার ৮০ শতাংশ রোগীর দেহেই শুরুতে কোনও লক্ষণ দেখা যায় নি ৷’’
অন্যদিকে মহারাষ্ট্রের মুখ্যমন্ত্রীর প্রশংসা করে এদিন ট্যুইট করেন সুর-সম্রাজ্ঞী লতা মঙ্গেশকরও ৷

টুইট করে লতা বলেন, ‘‘ নমস্কার, আজ মহারাষ্ট্রের মাননীয় মুখ্যমন্ত্রী উদ্ধব ঠাকরে রাজ্যের বর্তমান পরিস্থিতি নিয়ে যা বলেছেন এবং সরকার করোনা মোকাবিলায় যা পদক্ষেপ নিয়েছে, তা যথেষ্ট প্রশংসনীয় ৷ সব ধর্মের মানুষ একজোট হয়ে আমাদের মুখ্যমন্ত্রীকে সাহায্য করতে হবে ৷ সবাইকে একটাই অনুরোধ, বাড়িতে থাকুন, সুস্থ থাকুন ৷ ’’

 

 

উল্লেখ্য, এহেন অবস্থায় মহারাষ্ট্রে লকডাউন বাড়ার সম্ভাবনাই বেশি ৷ যদিও এ বিষয় এখনই কিছু জানাননি মুখ্যমন্ত্রী উদ্ধব ঠাকরে ৷ আগামী ৩০ এপ্রিলের পরেই লকডাউন নিয়ে রাজ্যসরকার বিচার-বিবেচনা করবেন বলে জানিয়েছেন ঠাকরে ৷ তবে একইসঙ্গে জানানো হচ্ছে, রাজ্যে বেশ কিছু ক্ষেত্রে লকডাউন শিথীল করারও ভাবনা রয়েছে ৷ যেমন ডাক্তাররা ফের তাদের ক্লিনিক এবং ডায়ালিসিস সেন্টার খুলতে পারেন বলে জানিয়েছেন ঠাকরে ৷ লকডাউন একবারে তুলে না দিয়ে ধীরে ধীরেই তা যে করা হবে, তা স্পষ্ট করে দিয়েছেন মহারাষ্ট্রের মুখ্যমন্ত্রী ৷

ঠাকরের মতে, ‘‘ আমাদের সবার উপরেই এই দায়িত্ব রয়েছে ৷ এটা হল ধৈর্য্যের খেলা ৷ করোনা যুদ্ধে আমাদের জিততে হবে ৷ মারণ ভাইরাসকে ধ্বংস করতে হবে ৷ ’’

 

Related Articles

Back to top button
Close