fbpx
গুরুত্বপূর্ণদেশহেডলাইন

দেশে একদিনে করোনা আক্রান্ত ৫৭ হাজারের বেশি

যুগশঙ্খ ডিজিটাল ডেস্ক: আনলক শুরু হওয়ার পর থেকেই দেশে লাগামহীনভাবে বাড়তে শুরু করেছে করোনা আক্রান্তের সংখ্যা। সেই ধারা এখনও অব্যাহত। একদিনেই নতুন করে আক্রান্ত হলেন ৫৭ হাজারের বেশি মানুষ। ফলে মোট আক্রান্ত প্রায় ১৭ লক্ষ। তবে, আক্রান্তের পাশাপাশি পাল্লা দিয়ে বাড়ছে সুস্থতার হারও। এখনও পর্যন্ত প্রায় ১১ লক্ষ মানুষ সুস্থ হয়ে বাড়ি ফিরেছেন।

শনিবার সকালে স্বাস্থ্য ও পরিবারকল্যাণ মন্ত্রকের  দেওয়া পরিসংখ্যান বলছে, গত ২৪ ঘণ্টায় দেশে ৫৭ হাজার ১১৭ করোনা আক্রান্ত হয়েছেন। ফলে মোট করোনা আক্রান্তের সংখ্যা বেড়ে দাঁড়িয়েছে ১৬ লক্ষ ৯৫ হাজার ৯৮৮ জন। এদের মধ্যে ১০ লক্ষ ৯৪ হাজার ৩৩৭ জন ইতিমধ্যেই সুস্থ হয়ে বাড়ি ফিরেছেন। এখনও চিকিৎসাধীন ৫ লক্ষ ৬৫ হাজার ১০৩ জন। এই নিয়ে টানা প্রায় তিনদিন ৫০ হাজারের বেশি মানুষ আক্রান্ত হচ্ছেন। আক্রান্তের সংখ্যার সঙ্গে পাল্লা দিয়ে বাড়ছে মৃতের সংখ্যাও। স্বাস্থ্য ও পরিবারকল্যাণ মন্ত্রকের দেওয়া তথ্য অনুযায়ী, গত ২৪ ঘণ্টায় দেশে করোনা আক্রান্ত হয়ে প্রাণ হারিয়েছেন ৭৬৪ জন। এর ফলে মোট মৃতের সংখ্যা গিয়ে দাঁড়াল ৩৬ হাজার ৫১১ জনে। বিশ্বের অন্যান্য দেশের তুলনায় ভারতের মৃত্যুহার এখনও খানিকটা কম।

আরও পড়ুন: অসম ও বিহারের বানভাসীদের পাশে দাঁড়াতে ব্যাট-বল নিলামে তুলছেন বিরাট-ঋদ্ধিদের-সানিয়ারা

গত কয়েক সপ্তাহ ধরে অন্ধ্রপ্রদেশে হু হু করে বেড়েছে করোনা আক্রান্তের সংখ্যা। ফলে এই মুহূর্তে মহারাষ্ট্র ও তামিলনাড়ুর পরে তিন নম্বরে রয়েছে দক্ষিণের এই রাজ্য। গত তিনদিনে অন্ধ্রপ্রদেশে আক্রান্তের সংখ্যা বেড়েছে ৩০ হাজারের বেশি। অর্থাত্‍ প্রতিদিন ১০ হাজারের বেশি নতুন আক্রান্ত দেখা দিয়েছে এই রাজ্যে। শুক্রবার অন্ধ্রে নতুন করে আক্রান্ত হয়েছেন ১০ হাজার ৩৭৬ জন। মৃত্যু হয়েছে ৬০ জনের। আর তারফলেই শুক্রবার এই রাজ্যে মোট আক্রান্তের সংখ্যা হয়েছে ১ লাখ ৪০ হাজার ৯৩৩ জন। ছাপিয়ে গিয়েছে দিল্লিকে। সেইসঙ্গে এই রাজ্যে মৃতের সংখ্যা হয়েছে ১৩৪৯ জন। দিল্লিতে এই মুহূর্তে মোট আক্রান্তের সংখ্যা ১ লাখ ৩৫ হাজার ৫৯৮ জন। মৃতের সংখ্যা ১১৯৫ জন। জানা গিয়েছে, অন্ধ্রে সংক্রমণের পজিটিভিটি রেট বেড়ে হয়েছে ৭.২২ শতাংশ। এই হার বাড়ার কারণ হল আক্রান্তের সংখ্যা বেড়ে যাওয়া। শুধু তাই নয়, এই মুহূর্তে অ্যাকটিভ রোগীর সংখ্যাতেও উপরের দিকেই রয়েছে এই রাজ্য। শুক্রবার অন্ধ্রপ্রদেশে সুস্থ হয়ে উঠেছেন ৩৮২২ জন। এর ফলে এই রাজ্যে মোট সুস্থ হয়ে উঠেছেন ৬৩ হাজার ৮৬৪ জন। এখনও পর্যন্ত এই রাজ্যে অ্যাকটিভ রোগীর সংখ্যা ৭৫ হাজার ৭২০ জন।

 

Related Articles

Back to top button
Close