fbpx
পশ্চিমবঙ্গহেডলাইন

বুদবুদে তৃণমূলে যোগ দিলেন বিজেপির ৬ বার জেতা প্রাক্তন সদস্য

জয়দেব লাহা, দুর্গাপুর: দুর্দিনে সম্পর্কহীন। আর তাই তৃণমূলে যোগ দিলেন বিজেপির ৬ বারের জেতা প্রাক্তন সদস্য। বুধবার চাঞ্চল্যকর ঘটনাটি ঘটেছে বুদবুদে। বিজেপি ছেড়ে তৃণমূলে যোগ দেওয়া ওই প্রাক্তন সদস্য শচীন দাস। বুদবুদের সুকান্ত নগরের বাসিন্দা। বুধবার বুদবুদ পিডব্লুউডি মাঠে তৃণমূলের সামাজিক দুরত্ব বজায় রেখে এক অনুষ্ঠানে যোগ দেন তিন। তার হাতে দলীয় পতাকা তুলে দেয় বিধায়ক অলোক মাঝি, তৃণমূলের গলসী-১ নং ব্লক সভাপতি জাকির হোসেন, গলসী-১ নং পঞ্চায়েত সমিতির সভাপতি অনুপ চট্টোপাধ্যায়।

প্রসঙ্গত, বুদবুদ পঞ্চায়েতের সুকান্ত নগর আসনটি বিজেপির শক্তঘাঁটি। দোর্দন্ড বামজামানায় ওই আসনটি বিজেপি বিপুল ভোটে জয়ী হয়েছে। আসনটিতে ৫ বার পঞ্চায়েত সদস্য হয়েছে শচীন দাস। এছাড়াও ১ বার পঞ্চায়েত সমিতির সদস্য হয়েছে। গত পঞ্চায়েত নির্বাচনে আসনটি তৃণমূল দখল করে।

তাছাড়াও শচীনবাবু পঞ্চায়েত সদস্য থাকাকালীন তৎকালীন সময়ে নির্মল গ্রামের শিরোপা পায় সুকান্ত নগর। পেয়েছিলেন মানপত্র।

এদিন তৃণমূলে যোগ দিয়ে স্থানীয় বিজেপিকর্মী ও নেতৃত্বের ওপর একরাশ ক্ষোভ উগরে দেন শচীনবাবু। তিনি বলেন,” দীর্ঘদিন দলটা করেছি। এখন আর নেতৃত্ব কোনও সম্পর্ক রাখে না। যোগ্য মর্যাদা, সম্মান পাই না। তাই মা মাটি মানুষের সরকারের কাজে অনুপ্রাণিত হয়ে তৃণমূল কংগ্রেসে যোগ দিয়েছি।”

যদিও এবিষয়ে বিজেপি নেতা রমন শর্মা বলেন,” শচীন দাসের সঙ্গে যথেষ্ট যোগাযোগ ছিল। লোকসভা ভোটে ভাল কাজ করেছেন। অনুমান কোনও প্ররোচনায় পা দিয়েছেন। নতুবা চাপে পড়ে যোগ দিয়েছেন।”
এদিন তৃণমূলের গলসী-১ নং ব্লক সভাপতি জাকির হোসেন বলেন,” দলের পক্ষ থেকে সাদরে গ্রহন করা হয়েছে। বিজেপি ভীত্তিহীন অভিযেগ করছে। তৃণমূল মা-মাটি মানুষের জন্য উন্নয়ন করে, সেটা শচীনবাবুর যোগদানই আবারও প্রমাণ করল।”

Related Articles

Back to top button
Close