fbpx
দেশহেডলাইন

রাহুলের পথে কাঁটা হবেন না, তাই মনমোহনকে প্রধানমন্ত্রী করেন সনিয়া! দাবি ওবামার

যুগশঙ্খ ডিজিটাল ডেস্ক:  প্রাক্তন মার্কিন প্রেসিডেন্ট বারাক ওবামার স্মৃতিকথা ‘আ প্রমিসড ল্যান্ড’ বইয়ে রাহুল গান্ধী সম্পর্কে যে বক্তব্য রয়েছে, তাকে ঘিরে ইতিমধ্যেই বিতর্ক শুরু হয়ে গিয়েছে। কেবল কংগ্রেসই নয়, শিব সেনাও কটাক্ষ করেছে ওবামাকে।

নিজের বই আ প্রমিসড ল্যান্ড- এ এমনই দাবি করেছেন প্রাক্তন মার্কিন প্রেসিডেন্ট বারাক ওবামা। এই বইতেই রাহুল গান্ধিকে নার্ভাস ছাত্র এবং অপরিণত বলে মত প্রকাশ করেছেন ওবামা। প্রেসিডেন্ট থাকাকালীন যে যে রাজনৈতিক নেতাদের সঙ্গে আলাপ হয়েছে, তাঁদের সম্পর্কে নিজের অভিমত এই বইতে তুলে ধরেছেন বারাক ওবামা। আর সেখানেই সনিয়া, রাহুল গান্ধি, মনমোহন সিং-দের নিয়ে নিজের মতামত তুলে ধরেছেন প্রাক্তন মার্কিন প্রেসিডেন্ট। যথেষ্ট আলোচনা শুরু হয়েছে। তবে এই বইতে প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি সম্পর্কে কিছু বলেননি ওবামা। নিজের এই বইতে আগাগোড়াই মনমোহন সিং-এর প্রশংসা করেছেন বারাক ওবামা। শিখ সম্প্রদায়ের প্রতিনিধি হয়ে প্রথাগত ভাবে রাজনীতি না করেও যেভাবে দেশের শীর্ষ পদে বসেছিলেন মনমোহন সিং, তার উল্লেখ করেছেন ওবামা।

দেশের প্রাক্তন প্রধানমন্ত্রী সম্পর্কে প্রাক্তন মার্কিন প্রেসিডেন্ট বলেছেন, ‘উনি একজন নিরাসক্ত ন‌্যায়পরায়ণ ব‌্যক্তি।’ ১৯৯০ সালে ভারতে অর্থনীতির উদারীকরণ শুরু হয়। দেশের এই বাজার নির্ভর অর্থনীতির প্রধান রূপকার হিসেবে মনমোহন সিংয়ের নাম করেছেন ওবামা। সংখ্যালঘু শিখ সম্প্রদায়ের একজন সদস্য হিসেবেও শেষপর্যন্ত তিনি দেশের প্রধানমন্ত্রী হয়েছিলেন বলে উল্লেখ করেন  প্রাক্তন মার্কিন প্রেসিডেন্ট। মনমোহন সিংকে প্রশংসায় ভরিয়ে দিয়ে তিনি জানিয়েছেন, ভারতের প্রাক্তন প্রধানমন্ত্রী মানুষের বিশ্বাস অর্জন করেছিলেন। কোনও প্রতিশ্রুতি দিয়ে নয়, সত্যিই মানুষের জীবনযাত্রার মানোন্নয়ন ঘটিয়ে সেটা পেয়েছিলেন তিনি। পাশাপাশি তাঁর দুর্নীতির সংস্রব এড়িয়ে চলা স্বচ্ছ ভাবমূর্তিরও প্রশংসা করেছেন ওবামা।

আরও পড়ুন:আজ ব্রিকস সম্মেলন থাকছেন মোদি

মনমোহন সিংয়ের প্রধানমন্ত্রিত্ব সম্পর্কে এত কথা বলার মাঝেই বিতর্কে ইন্ধন জুগিয়ে ওবামা লেখেন, ভারতীয় রাজনীতি ধর্ম, জাতপাতের মধ্যেই নিমজ্জিত রয়েছে। মনমোহনের প্রধানমন্ত্রীর মসনদে বসাকে অনেকেই সাম্প্রদায়িক বিভাজনের ঊর্ধ্বে উঠে দেশের উন্নতির এক প্রতীক বলে মনে করে। কিন্তু আসল ব্যাপারটা আদৌ তা নয়।

ওবামা পরিষ্কার দাবি করেছেন, ‘‘একাধিক রাজনৈতিক বিশেষজ্ঞ মনে করেন, সোনিয়া গান্ধী মনমোহনকে বেছে নিয়েছিলেন, তার পিছনে কারণ ছিল। আসলে সেই অর্থে জাতীয় রাজনীতিতে কোনও ভিত না থাকা একজন অগ্রজ শিখ নেতা তাঁর চল্লিশ বছরের ছেলের জন্য ঝুঁকিবহুল হবেন না, এটা বুঝতে পেরেই তাঁকে প্রধানমন্ত্রী করেন সোনিয়া গান্ধী ।’’

তবে কেবল কংগ্রেসই নয়, বিজেপিকেও অস্বস্তিতে ফেলেছেন প্রাক্তন মার্কিন প্রেসিডেন্ট। সমালোচনা করেছেন গেরুয়া শিবিরের ‘বিভাজনমূলক রাজনীতি’র। লোকসভায় কংগ্রেসের নেতা অধীর চৌধুরী ইতিমধ্যেই ওবামাকে আক্রমণ করেছেন। রাহুল গান্ধীকে ‘শিক্ষককে তুষ্ট করার চেষ্টা চালিয়ে যাওয়া ছাত্র’ বলেছেন ওবামা। সেই প্রসঙ্গে অধীর তাঁকে ‘কুয়োর ব্যাঙ’ মানসিকতা থেকে বেরিয়ে আসার হুঁশিয়ারি দেন। শিব সেনা নেতা সঞ্জয় রাউত প্রশ্ন তুলেছেন, ‘‘ওবামা এই দেশ সম্পর্কে কতটুকু জানেন?’’

বিহার ভোটে বিপর্যয়ের পর কংগ্রেসের মধ্যেই বিরোধিতার সুর জোরাল হচ্ছে। এই পরিস্থিতিতে বারাক ওবামার এই চাঞ্চল্যকর দাবি যে কংগ্রেসের অস্বস্তি আরও বাড়াবে, তা বলার অপেক্ষা রাখে না।

 

 

Related Articles

Back to top button
Close