fbpx
কলকাতাহেডলাইন

ভার নিয়ন্ত্রণে অত্যাধুনিক ব্যবস্থা মাঝেরহাট ব্রিজে

নিজস্ব প্রতিনিধি, কলকাতা: মাঝের হাট ব্রিজের প্রস্তুতি প্রায় শেষ লগ্নে। দীর্ঘ দিন ধরেই অপেক্ষায় আছে বেহালাবাসী। তবে জোর কদমে চলছে শেষ মুহূর্তের কাজ। এবার নবনির্মিত এই ব্রিজে অত্যাধুনিক নকশা অনুযায়ী অত্যাধুনিক যন্ত্র বসানো হয়েছে। এই যন্ত্রের মাধ্যমে ব্রিজে অত্যাধুনিক ভার সম্পন্ন গাড়ি উঠলে তা ধরা পরে যাবে সহজেই। ব্রিজ যাতে পুনরায় অত্যাধিক ভারের জন্য ভেঙে না পড়ে সেই কারণেই এই অত্যাধুনিক ব্যবস্থা রাখা হয়েছে।
এই নতুন মাঝেরহাট ব্রিজ অনেকটা দ্বিতীয় হুগলি সেতুর আদলে তৈরি করা হয়েছে। ৮৪টি কেবলের ওপর ভর করে ঝুলে থাকবে এই মাজেরহাট ব্রিজ। আর এই ৮৪টি কেবলই লাগানো থাকবে এক অত্যাধুনিক যন্ত্র। যার মাধ্যমে ব্রিজে অত্যাধুনিক ভার সম্পন্ন গাড়ি উঠলেই মোবাইলে নোটিফিকেশন যাবে আধিকারিকদের কাছে। সেই সংকেত দেখে সতর্ক হবেন আধিকারিকরা।
চলতি বছরের শেষেই খুলে যেতে পারে মাঝেরহাট ব্রিজ। এই মুহূর্তে শুরু হয়ে গিয়েছে ব্রিজের শেষ ধাপ এর কাজ। পুরোদমে চলছে সেই কাজ। তবে পুজোর আগেই এই ব্রিজ খুলবে কিনা তা নিয়ে রয়েছে সংশয়। মাঝেরহাট সেতু ভেঙে পড়ায় বহু মানুষের চলাচলে অসুবিধা হচ্ছে। তাই চলতি বছরে জনসাধারণের যাতায়াতের সুবিধার জন্য এই ব্রিজ খুলে দিতে চায় রাজ্য সরকার। সেই কারণেই মাঝেরহাট ব্রিজের শেষ ধাপ এর কাজ ইতিমধ্যেই শুরু হয়ে গিয়েছে। যা হয়তো শেষ হয়ে যাবে খুব শীঘ্র।
নতুন মাঝেরহাট ব্রিজ তৈরি করার জন্য সুইজারল্যান্ড থেকে নিয়ে আসা হয়েছে বিশেষ ধরনের উচ্চক্ষমতাসম্পন্ন কেবল। এই কেবল সেতুকে শক্তভাবে ধরে রাখবে বলেই জানাচ্ছেন বিশেষজ্ঞরা। কেবল এর পোশাকি নাম স্ট্যান্ড। এগুলিকে দেখতে অনেকটা সরু লোহার রডের মত কালো রংয়ের। পাশাপাশি অন্যদিকে রয়েছে জলের পাইপ এর মতো বড়-বড় এক ধরনের পাইপ। যাকে বলা হচ্ছে ডাক্ট। এই স্ট্যান্ডগুলিকে ডাক্ট-র ভিতর দিয়ে প্রবেশ করানো হবে। কোনও কোনও ডাক্টের ভিতর দিয়ে যেতে পারবে ২০ থেকে ২২ স্ট্যান্ড। ব্রিজের স্তম্ভগুলির মধ্যে টান হিসেবে দেওয়া হবে এই ডাক্ট গুলিকে। অন্যদিকে টান করে ধরে রাখতে সাহায্য করবে কেবল। এ ধরনের ৮৪ খানা ডাক্ট নিয়ে আসা হয়েছে।

Related Articles

Back to top button
Close