fbpx
কলকাতাহেডলাইন

সৌমিত্র চট্টোপাধ্যায়কে বিভিন্ন পদ থেকে হটিয়ে কলকাতা জুড়ে নাটক হল, মমতাকে তোপ অধীরের

অভিষেক গঙ্গোপাধ্যায়, কলকাতা: ‘সৌমিত্র চট্টোপাধ্যায়ের মৃতদেহ নিয়ে অনেক নাটক রাজনীতি করা হয়েছে।’ তোপ দাগলেন প্রদেশ কংগ্রেস সভাপতি অধীর রঞ্জন চৌধুরী। বুধবার সকালে প্রয়াত অভিনেতার বাড়িতে গিয়ে সাংবাদিকদের মুখোমুখি হয়ে রাজ্য সরকারের বিরুদ্ধে কড়া ভাষায় আক্রমণ শানালেন অধীর। রবিবারই শেষ নিঃশ্বাস ত্যাগ করেছেন বর্ষীয়ান অভিনেতা সৌমিত্র চট্টোপাধ্যায়। মঙ্গলবার অভিনেতার তিন দিনের কাজ সারেন তার মেয়ে পৌলমী। এদিন সৌমিত্র চট্টোপাধ্যায়ের গল্ফগ্রীনের বাড়িতে গিয়ে পরিবারের সঙ্গে দেখা করে সমবেদনা জানালেন প্রদেশ কংগ্রেস সভাপতি।

এদিন তার বাড়িতে এসে প্রথমেই দেখা করেন তার কন্যা পৌলমী বসুর সঙ্গে। সেখানে দাঁড়িয়ে বেশ খানিকক্ষণ কথা বলেন দুজনে। এরপর তিনি পৌলমী দেবীর কাছ থেকে অনুমতি চেয়ে নেন যেন তাঁর বাবার ছবিতে মাল্যদান করতে পারেন। এরপর সৌমিত্র চট্টোপাধ্যায় যে ঘরে থাকতেন সেই ঘর ঘুরে দেখেন অধীর রঞ্জন চৌধুরী। সেখান থেকে বেরিয়ে আসার পর  সাংবাদিকদের মুখোমুখি হয়ে অধীর রঞ্জন চৌধুরী বলেন,’২০১১-কে যথাযথ সম্মান দেননি রাজ্য সরকার। বেঁচে থাকতে মর্যাদা পেলেন না, মৃতদেহ নিয়ে রাজনীতি হল। সৌমিত্রর মৃতদেহ নিয়ে অনেক নাটক- রাজনীতি করা হয়েছে। ২০১১ থেকে ২০২০ সাল পর্যন্ত সৌমিত্র চট্টোপাধ্যায়ের মতো একজন বড় মাপের শিল্পীকে কখনও এই সরকার কোনও সম্মান দেয়নি। সৌমিত্রকে বঞ্চিত করা হয়েছে।

কাজেই এবার এসআরএফটিআই-তে একটা চেয়ার সৌমিত্র চট্টোপাধ্যায়ের নামে করা হোক’।এছাড়াও তিনি জানান, সৌমিত্র চট্টোপাধ্যায়ের ঘর দর্শন করে তিনি উপলব্ধি করেন যেন তীর্থ যাত্রা করলেন। সৌমিত্র চট্টোপাধ্যায় কত সাধারণ জীবন যাপন করতেন তা তুলে ধরলেন অধীর বাবু। তিনি জানিয়েছেন এখনও সৌমিত্র চট্টোপাধ্যায়ের টেবিলে পড়ে রয়েছে তাঁর আঁকা ছবি ও লেখা। এক মহামানব ছিলেন বলেও জানান প্রদেশ কংগ্রেস সভাপতি। অধীর রঞ্জন চৌধুরীর বক্তব্যের প্রসঙ্গে সৌমিত্র চট্টোপাধ্যায়ের মেয়ে পৌলমী বোসকে প্রশ্ন করা হলে হলে তিনি বলেন, ‘মাননীয়া মুখ্যমন্ত্রী সমস্ত রকমভাবে আমাদের সাহায্যও করেছেন, পাশে থাকার অশ্বাস দিয়েছেন। এসব নিয়ে কোনও মন্তব্য করতেই চাই না’।

 

Related Articles

Back to top button
Close