fbpx
পশ্চিমবঙ্গহেডলাইন

কালনায় বিজেপি কর্মী খুনের ঘটনায় সিবিআই তদন্তের দাবি সৌমিত্র খাঁ-র

নিজস্ব সংবাদদাতা, কালনা: কালনায় বিজেপি কর্মীকে পিটিয়ে খুনের ঘটনায় অভিযুক্তরা যতক্ষণ না ধরা পড়বে ততক্ষণ পর্যন্ত দলীয়ভাবে আন্দোলন চলবে। শুধু তাই নয় এই ঘটনার কথা রাজ্যপালকে জানানোর পাশাপাশি সিবিআই তদন্ত চাইবো। মঙ্গলবার পূর্ব বর্ধমানের কালনায় মৃত বিজেপি কর্মীর বাড়িতে বসেই সাংবাদিকদের প্রশ্নের উত্তরে রাজ্য বিজেপি যুব মোর্চার সভাপতি ও সাংসদ সৌমিত্র খাঁ এইভাবেই শাসকদলের বিরুদ্ধে তোপ দাগেন। শুধু তাই নয়, এইদিন তিনি মৃত কর্মীর পরিবারের পাশে থাকার আশ্বাস দেন।

উল্লেখ্য, গত ৫ ই সেপ্টেম্বর কালনার পাথরঘাটা গ্রামে বিজেপি কর্মী রবিন পালের বাড়ির সীমানায় থাকা একটি গাছ কাটার ঘটনাকে কেন্দ্র করে অশান্তি তৈরী হয়।অভিযোগ সেইসময় রবিনবাবু গাছ কাটার প্রতিবাদ করলে সেইসময় তাকে বাড়ি থেকে বের করে এনে ধারালো অস্ত্র দিয়ে কোপানো সহ লাঠি দিয়ে তাকে পেটানো হয়। এরপরেই তাকে কালনা হাসপাতালে ভর্তি করা হলে সেখানেই তার মৃত্যু হয়।এই ঘটনাকে কেন্দ্র করে অগ্নিগর্ভ পরিস্থিতি তৈরি হয় কালনায়। স্থানীয় পঞ্চায়েতের  উপপ্রধান সহ পনেরো জনের বিরুদ্ধে কালনা থানায় অভিযোগ দায়ের হয়।পুলিশ ঘটনার তদন্তে নেমে এখনো পর্যন্ত ছয়জনকে গ্রেফতার করা হলেও উপপ্রধান সহ বাকিরা এখনো অধরা।এই ঘটনার পরের দিনই পথ অবরোধ সহ বিক্ষোভ করেন বিজেপির রাজ্য ও জেলা নেতৃত্ব।

এরপরেই মঙ্গলবার বিকালে কালনায় এসে উপস্থিত হোন বিজেপির রাজ্য যুব মোর্চার সভাপতি ও সাংসদ সৌমিত্র খাঁ। এইদিন পূর্ব সাতগাছি থেকে বাইক মিছিল করে বুলবুলিতলা,ধাত্রীগ্রাম হয়ে পাথরঘাটা গ্রামে মৃতের বাড়িতে পৌঁছান বিজেপি যুব মোর্চার জেলা ও রাজ্য নেতৃত্ব। এইদিন ওই বাড়িতে বসেই সাংবাদিকদের প্রশ্নের উত্তরে সৌমিত্র খাঁ বলেন, ‘খুবই দুঃখের বিষয় একটি মেয়ে ক্লাস সিক্স -এ পড়ে, আর একজন সবে মাধ্যমিক দিয়েছে। এই পরিবার ও দুই নাবালিকা মেয়ে তাদের একমাত্র রোজগেরে বাবাকে হারালো। শুধুমাত্র ক্ষমতার লোভে রাজ্যের শাসকদলের হাতে যেভাবে আমাদের কর্মীদের খুন হতে হচ্ছে এর থেকে চরমতম লজ্জার আর কি আছে?’

আরও একধাপ এগিয়ে তিনি বলেন,‘এই সমস্ত রিপোর্ট পার্টিকে দেব। গ্রামান্চলের নিরীহ মানুষদের যেভাবে খুন হতে হচ্ছে তা লজ্জাজনক। আর খুনের ঘটনায় অভিযুক্তরা যতক্ষণ না ধরা পড়বে ততক্ষণ পর্যন্ত দলীয়ভাবে আন্দোলন চলবে।কলকাতায় গিয়ে তুলে ধরবো। শুধু তাই নয় এই ঘটনার কথা রাজ্যপালকে জানানোর পাশাপাশি সিবিআই তদন্ত চাইবো।’ এছাড়াও মৃতের পরিবারের পাশে থাকার আশ্বাস দিয়ে বিজেপি সাংসদ বলেন, ‘যুব মোর্চার পক্ষ থেকে এইদিন মৃত বিজেপি কর্মীর বাড়িতে আসা হয়। দলের পক্ষ থেকে পরিবারের পাশে দাঁড়ানো হবে।’ ষষ্ঠ শ্রেণীতে পড়া একটি মেয়ের পড়াশোনার দায়িত্ব দলের পক্ষ থেকে নেওয়া হবে বলেও তিনি জানান।

Related Articles

Back to top button
Close