fbpx
কলকাতাগুরুত্বপূর্ণপশ্চিমবঙ্গহেডলাইন

জল্পনা উড়িয়ে জন্মদিনে ফের পাশাপাশি শোভন-বৈশাখী

স্বর্নার্ক ঘোষ,কলকাতা:  রাজনৈতিক ও ব্যক্তিগত সাংসারিক জীবনের টানাপোড়েনকে দূরে সরিয়ে একবার ফের একসঙ্গে দেখা গেল শোভন চট্টোপাধ্যায় ও বৈশাখী বন্দোপাধ্যায়কে। গতকাল অর্থাৎ শনিবার ছিল বৈশাখী বন্দ্যোপাধ্যায়ের জন্মদিন। আর জন্মদিন উপলক্ষেই বৈশাখী দেবীর সঙ্গে দেখা গেল শোভনকে। লকডাউন এর মধ্যেও বৈশাখীর জন্মদিনের অনুষ্ঠানে হাজির ছিলেন তাঁর ঘনিষ্ঠ মহলের লোকজন।  ছিলেন বৈশাখীর স্বামী ও তাঁর কন্যাও।  তারই মধ্যে আনন্দের সঙ্গে হাসিমুখে অনুষ্ঠানটি উপভোগ করতে দেখা যায় কলকাতার প্রাক্তন মেয়রকেও। বৈশাখী দেবী কেক কাটার সময় পাশে দাঁড়িয়ে ছিলেন এই প্রাক্তন তৃণমূল নেতা ‌।

প্রসঙ্গত উল্লেখ্য, প্রায় কত বছর দেড়েক থেকেই শোভন-বৈশাখীর সম্পর্ককে কেন্দ্র করে যথেষ্টই প্রভাবিত হয়েছিল রাজ্যে রাজনীতি।‌ যার প্রভাব শুধুমাত্র রাজনৈতিক গণ্ডির মধ্যে আবদ্ধ না থেকে আছে পড়েছিল প্রাক্তন মেয়রের দাম্পত্য জীবনেও। ২০১৮ সালের শেষ দিকে  দাম্পত্য কলহ তীব্র আকার ধারণ করলে বিচ্ছেদের পথে হাঁটার সিদ্ধান্ত নেন চট্টোপাধ্যায় দম্পতি। সে সময় স্ত্রী রত্না চট্টোপাধ্যায়ের রোষের মুখে পড়তে হয় বৈশাখী বন্দ্যোপাধ্যায়কে।‌ হুমকি পাল্টা হুমকি মধ‍্য কিন্তু ‘শুভানুধ্যায়ী’ বৈশাখীর পাশেই শেষ পর্যন্ত দাঁড়াতে দেখা গিয়েছিল শোভনকে।

যদিও  এর প্রভাব পড়েছিল শোভনের রাজনৈতিক ক্যারিয়ারও।‌  দীর্ঘ নয় বছর কলকাতা কর্পোরেশনের মেয়র থাকার পর সেই পদ থেকে পদত্যাগ করেন শোভন। এরপর লোকসভা নির্বাচনে বিপুল ভোটে জিতে কেন্দ্র ক্ষমতায় বিজেপি আসতেই পুরনো দল তৃণমূল কংগ্রেস ছেড়ে বৈশাখীকে নিয়ে বিজেপিতে যোগদান তাঁর রাজনৈতিক জীবনের একটি টার্নিং পয়েন্ট হয়ে দাঁড়ায়। এই আবহে বেশ কিছুদিন আগে যখন রাজ্যে পুরভোট নিয়ে দামামা  বেজে ওঠে।‌ কলকাতা মেয়র পদে শোভন চট্টোপাধ্যায় যথার্থ ব্যক্তি এমন দাবি জানিয়ে ফের শোভনের পাশে দাঁড়াতে দেখা যায় বান্ধবী বৈশাখীকে।‌

এরপর গঙ্গা দিয়ে অনেক জল গড়ালো, দেশে করোনা প্রকোপ বাড়ার সঙ্গে সঙ্গে লকডাউন জারি হল গোটা দেশে। পিছোল পৌরসভা নির্বাচন। আর এই একঘেয়ে লকডাউনের আবহে বান্ধবী বৈশাখীর জন্মদিনে ফের এক ফ্রেমে দেখা গেল শোভন-বৈশাখী জুটিকে।

Related Articles

Back to top button
Close