fbpx
পশ্চিমবঙ্গহেডলাইন

দিনহাটায় তৃণমূলের মহিলা সংগঠনের বিশেষ সভা

নিজস্ব সংবাদদাতা, দিনহাটা: আগামী বিধানসভা নির্বাচনের দিকে লক্ষ্য রেখে বুথ স্তর থেকে মহিলা সংগঠন কে আরো বেশি শক্তিশালী করে তুলতে তৃণমূল মহিলা কংগ্রেসের বিশেষ সভা অনুষ্ঠিত হল। বুধবার দিনহাটা ১ ব্লকের পেটলার তিলোত্তমা ভবনে যোগাযোগে আমরা এই কর্মসূচিকে সামনে রেখে মহিলা সংগঠনের কর্মী সভা অনুষ্ঠিত হয়। এদিনের এই সভায় উপস্থিত ছিলেন সিতাই বিধানসভা কেন্দ্রের বিধায়ক জগদীশচন্দ্র বর্মা বসুনিয়া, তৃণমূল মহিলা কংগ্রেসের কোচবিহার জেলা সম্পাদিকা সিতাই পঞ্চায়েত সমিতির সভাপতি সংগীতা রায় বসুনিয়া, দিনহাটা এক পঞ্চায়েত সমিতির সদস্য প্রসন্ন দেব শর্মা, সমরেশ দেব, মহিলা সংগঠনের দিনহাটা এক ব্লক সভাপতি প্রতিমা রায় সরকার, পেটলা গ্রাম পঞ্চায়েত প্রধান অহিদা বেগম, প্রাক্তন ব্লক সভাপতি মাম্পি রায়, তৃণমূল এসসি এসটি ওবিসি সেলের দিনহাটা এক ব্লক সভাপতি পুলক চন্দ্র বর্মন, করুনা কান্ত রায় প্রমুখ।

মহিলা সংগঠনের উদ্যোগে যোগাযোগে আমরা এই কর্মসূচি উপলক্ষে এদিন এই সভা শুরু হলে ধর্ষণ কাণ্ডে অভিযুক্ত দলের সিতাই বিধানসভা কার্যকরী কমিটির আহ্বায়ক তথা জেলা পরিষদের কর্মাধ্যক্ষ বহিস্কৃত তৃণমূল নেতা নুর আলম হোসেন সভাস্থলে আসতেই বেশ কয়েকজন তৃণমূল নেতা ও পঞ্চায়েত সমিতির সদস্য সভাস্থল থেকে বেরিয়ে পড়লেন। বহিস্কৃত নেতা আশায় তারা সভাস্থল ত্যাগ করেন বলেও জানান। তাদের অভিযোগ ওই নেতাকে দল থেকে বহিষ্কার করা বিধায়ক অন্যান্যরা তার উপস্থিতিতেই সভা করেন।

আরও পড়ুন: লকডাউন- সামাজিক দূরত্ব না মেনে বিজেপি নেত্রী অগ্নিমিত্রার বিরুদ্ধে জমায়েত করার অভিযোগ

মহিলা সংগঠনের এদিনের এই সভায় বক্তব্য রাখতে গিয়ে বিধায়ক জগদীশ চন্দ্র বর্মা বসুনিয়া বিজেপিকে কড়া ভাষায় আক্রমণ করেন। পাশাপাশি আগামী বিধানসভা নির্বাচনের দিকে লক্ষ রেখে এখন থেকেই মহিলা কর্মীদের বাড়ি বাড়ি গিয়ে মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের নেতৃত্বে রাজ্য সরকারের নানা উন্নয়নের কথা প্রচার এ তুলে ধরতে হবে। পাশাপাশি বুক স্টরে যে মহিলা সংগঠন রয়েছে তা আরো শক্তি শালী করে বিজেপিকে ছুড়ে ফেলার ডাক দেওয়া হয়।

এদিনের এই সভায় সংগঠনের কোচবিহার জেলা সম্পাদিকা সংগীতা রায় বসুনিয়া মমতা বন্দোপাধ্যায়ের হাতকে আরো বেশি শক্তিশালী করে তুলতে মহিলাদের আরও বেশি করে এগিয়ে আসার কথা বলেন। এদিনের সভার পরিচালনা করেন পুলক চন্দ্র বর্মন।

এদিনের সভায় ধর্ষণকাণ্ডে বহিস্কৃত নুর আলম হোসেন সভায় যোগ দিতেই বেশ কয়েকজন তৃণমূল নেতা সভাস্থল থেকে চলে যাওয়ায় ব্যাপক আলোড়ন ছড়িয়ে পড়ে। তৃণমূল কৃষক সংগঠনের দিনহাটা এক ব্লক সভাপতি পর্বানন্দ বর্মন , দিনহাটা এক পঞ্চায়েত সমিতির সদস্য প্রসন্ন দেবশর্মা, সমরেশ দেব প্রমুখ জানান ধর্ষণ কাণ্ডে অভিযুক্ত নুর আলম হোসেন কে রাজ্য নেতৃত্বে নির্দেশে দল থেকে বহিষ্কার করে জেলা নেতৃত্ব। তার পরেও বহিস্কৃত নেতা সভাস্থলে আসায় তাকে নিয়ে সভা করে বিধায়ক ও তার অনুগামীরা। এদিন দলের মহিলা সংগঠনের সভায় বহিস্কৃত সেই নেতা যোগ দেওয়ায় প্রতিবাদে তারা সভা থেকে বেরিয়ে আসেন বলেও জানান।পাশাপাশি গোটা ঘটনা জেলা নেতৃত্ব কেউ জানানো হবে বলে তারা জানান।
বিধায়ক জগদীশ চন্দ্র বর্মা বসুনিয়া বলেন নুর আলম হোসেন আদালতে জামিন পেয়েছে । তাছাড়াও সে জেলা পরিষদের কর্মাধ্যক্ষ। একজন বহিস্কৃত নেতা বা কর্মী সভাস্থলে আসতেই পারেন।

Related Articles

Back to top button
Close