fbpx
পশ্চিমবঙ্গহেডলাইন

মুখ্যমন্ত্রীর ছবি লাগিয়ে, সীমান্ত বাণিজ্যের চালুর করার দাবি ব্যবসায়ীদের

শ‍্যাম বিশ্বাস, উওর ২৪ পরগনা: লকডাউন ৮৫ দিন কেটে যাওয়ার পর সীমান্ত বাণিজ্য চালুর দাবিতে ঘোজাডাঙ্গা সীমান্তের ব্যবসায়ীরা ইছামতি ব্রিজের সম্মুখে ইটিন্ডা রোডে পথসভা করল। রাজ্যের ভারত-বাংলাদেশ সীমান্তের আটটা স্থলবন্দর রয়েছে। ইতিমধ্যে হিলি, পেট্রোপোল, ফুলবাড়ী সহ সাতটি বন্দর খুলে গেলেও বসিরহাট মহাকুমার বসিরহাট থানার ভারত-বাংলাদেশ সীমান্তের ঘোজাডাঙ্গা স্থলবন্দর বন্ধ। দেশের দ্বিতীয় বৃহত্তম স্থলবন্দর এখনও চালু হয়নি।

লকডাউন এর ৮৫ দিন কেটে গেল এখনও ঘোজাডাঙ্গা সীমান্তে আমদানি ও রফতানি করতে পারছেন না ব্যবসায়ীরা। প্রায় ২০০০ ব্যবসায়ীর সঙ্গে প্রায় লক্ষাধিক কর্মী এর সঙ্গে পরোক্ষ ও প্রত্যক্ষ ভাবে যুক্ত। ইতিমধ্যে ব্যবসায়ীদের পক্ষ থেকে জেলাশাসক ও নবান্নের স্বরাষ্ট্র সচিবকে জানানো সত্ত্বেও এখনও কোনও সুরাহা করতে পারা যায় নি।

তাই তারা বাধ্য হয়ে পথে নেমেছে। বসিরহাট ইছামতি ব্রিজের সীমান্তে রোডের সম্মুখে রাস্তার উপরে মাইক বেঁধে মুখ্যমন্ত্রীর ছবি লাগিয়ে পথসভা করছেন ব্যবসায়ীরা। ঘোজাডাঙ্গা আমদানি-রফতানি সংস্থার সম্পাদক জয়দেব সরকার বলেন, ব্যবসায়ী থেকে শুরু করে কয়েক লক্ষ পরিবার আমরা এই সীমান্ত আমদানি রফতানির সঙ্গে পরোক্ষ বা প্রত্যক্ষভাবে যুক্ত। একদিকে লকডাউন এর জেরে আমাদের যেমন রুজি-রোজগার টান পরেছে।

অন্যদিকে সীমান্ত বানিজ্য বন্ধের ফলে আমাদের অনাহারে দিন কাটাতে হচ্ছে। রাজ্যের সাতটি স্থলবন্দর চালু হলেও উত্তর ২৪ পরগনার বসিরহাট মহকুমায় ঘোজাডাঙ্গা সীমান্তে বাণিজ্য এখনও বন্ধ। যার ফলে বিপাকে পড়েছে সীমান্ত বাণিজ্যের ব্যবসায়ী থেকে কর্মীরা। দ্রুত সীমান্ত বানিজ্য চালু না হলে আমরা বৃহত্তম আন্দোলনের ডাক দেওয়া হয়েছে।

Related Articles

Back to top button
Close