fbpx
কলকাতাগুরুত্বপূর্ণপশ্চিমবঙ্গহেডলাইন

রাজ্যবাসীর উচিত সংকটের সময়ে রাজ্য সরকারের পাশে থাকা: রাজ্যপাল জগদীপ ধনকর

অলোক কুমার ঘোষ, ব্যারাকপুর: দেশ ও রাজ্যের সুস্থতা কামনা করে বুধবার বিকেলে দক্ষিণেশ্বর কালী মন্দিরে এসে পুজো দিলেন সস্ত্রীক রাজ্যপাল জগদীপ ধনকর। একই সঙ্গে মন্দির কর্তৃপক্ষকে ১ লক্ষ টাকা আর্থিক সহায়তা, ২ হাজার কেজি চাল ও ২৫০ টি এন ৯৫ মাস্ক প্রদান করেছেন রাজ্যপাল।

করোনা ভাইরাসের সতর্কতার মধ্যেই সম্পূর্ণ সুরক্ষিত নিরাপত্তা বলয় গড়ে আড়াই মাস বন্ধ থাকার পর ভক্তদের জন্য সম্প্রতি খুলে দেওয়া হয়েছে দক্ষিণেশ্বর মন্দির। গত শনিবার থেকে আনুষ্ঠানিক ভাবে খুলে গেছে মন্দির। করোনা আবহে দক্ষিণেশ্বর কালী মন্দির নতুন করে খোলার পর বুধবার বিকেলে সস্ত্রীক রাজ্যপাল জগদীপ ধনকর দক্ষিণেশ্বর মন্দিরে এসে পুজো দিলেন। বুধবার দুপুর তিনটে বাইশ মিনিটে স্ত্রীকে সঙ্গে নিয়ে রাজ্যপাল দক্ষিণেশ্বর কালী মন্দিরে প্রবেশ করেন। তারপর মা ভবতারিণীর কাছে পুজো দিয়ে দেশ ও বাংলায় শান্তি ফেরানোর প্রার্থনা করেন।

বেশ কিছুক্ষণ মায়ের মন্দিরে সময় কাটিয়ে সংবাদ মাধ্যমের মুখোমুখি হয়ে তিনি বলেন,” মায়ের কাছে প্রার্থনা করেছি বাংলা তথা দেশ যেন ভালো থাকে। এই কঠিন সময়ে রাজ্যবাসী যেন রাজ্য সরকারের পাশে থাকে। এই সময় রাজ্যের উচিত দেশের পাশে থেকে সমন্বয় সাধনের মাধ্যমে কাজ করা। এখন বাংলা দেশের পাশে সমন্বয় সাধনের মাধ্যমে পাশে দাঁড়ালে বাংলার পাশে আগামীদিন দেশ দাঁড়াবে।”

রাজ্যপাল জগদীপ ধনকর দক্ষিণেশ্বর মন্দির কমিটিকে এক লক্ষ টাকা আর্থিক সহায়তা, দুহাজার কিলো চাল, ২৫০ টি উন্নত মানের এন নাইনটি ফাইভ (এন ৯৫) মাস্ক তুলে দেন কোভিড মোকাবিলার জন্য। বুধবার তিনি ধর্মীয় স্থানে চিন বা রাজ্য রাজনীতির কোনও প্রসঙ্গ নিয়ে মন্তব্য করতে চান নি সংবাদ মাধ্যমের কাছে। সস্ত্রীক রাজ্যপালের দক্ষিণেশ্বর মন্দিরে আসাকে কেন্দ্র করে দক্ষিণেশ্বর মন্দির চত্বরে কড়া নিরাপত্তা ব্যবস্থা জারি ছিল। রাজ্যপাল যখন মন্দিরে প্রবেশ করেন, তখন সাধারণ ভক্তদের নিরাপত্তার কারণে মন্দিরে প্রবেশ করতে দেওয়া হয়নি প্রশাসনের পক্ষ থেকে। দক্ষিণেশ্বর মন্দির চত্বরের নতুন নিয়মাবলী ও সুরক্ষা ব্যবস্থার ভূয়ষী প্রসংশা করেন রাজ্যপাল ধনকর।

Related Articles

Back to top button
Close