fbpx
গুরুত্বপূর্ণপশ্চিমবঙ্গহেডলাইন

রাজ্যের পরিস্থিতি ভয় ও আতঙ্কের, দ্রুত কেন্দ্রীয় বাহিনী মোতায়েন করা উচিৎ: কৈলাস

নিজস্ব সংবাদদাতা, বোলপুর: ভয় ও আতঙ্ক কাটিয়ে মানুষ যাতে নির্ভয়ে ভোট দিতে পারে সেই জন্য নির্বাচন কমিশনের উচিৎ এখন থেকে রাজ্যে কেন্দ্রীয় বাহিনী মোতায়েন করতে হবে। রবিবার বোলপুরে এসে এমনটাই জানালেন বিজেপির সর্বভারতীয় সাধারণ সম্পাদক কৈলাশ বিজয়বর্গীয়।

রবিবার বোলপুরে এসে কৈলাশ বিজয়বর্গীয় বলেন, মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় রাজ্যে আতঙ্কের পরিবেশ তৈরি করতে চাইছেন। ওনার পায়ের নীচে জমি সরে গিয়েছে তাই আতঙ্কের পরিবেশ তৈরি করে আবার ক্ষমতায় ফিরে আসতে চাইছেন। পশ্চিমবাংলার সংস্কার এবং সংস্কৃতিতে ভয়ের পরিবেশ থাকা উচিত নয়। তাই  আমরা নির্বাচন কমিশনের কাছে আবেদন করব যাতে মানুষ নির্ভয়ে ভোট দিতে পারে, এবং আতঙ্ক এবং হিংসার রাজনীতি শেষ করতে এখন থেকে রাজ্যে কেন্দ্রীয় বাহিনী মোতায়েন করে।

কেন্দ্র এবং রাজ্যের মধ্যে যে রাজনৈতিক দ্বন্দ্ব চলছে সেই বিষয়ে তিনি বলেন, “আমরা জানি কেন্দ্র সরকার এবং রাজ্য সরকারের নিজেদের নিজেদের নির্দিষ্ট ভূমিকা রয়েছে। সংবিধানে যে অধিকার দিয়েছে সেই অনুসারে দুই পক্ষকে তাদের ভূমিকা পালন করতে হবে। কিন্তু দুঃখজনক ভাবে দেখা যাচ্ছে, মাননীয় মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় ভাবছেন পশ্চিমবাংলা ভারতের কোন অংশ নয়, যেন আলাদা দেশ।  আর উনি হচ্ছেন সেই দেশের রাজা, তাই উনি যা চাইবেন সেটাই হবে”।

তিনি আরও বলেন বাবা সাহেব আম্বেদকরের সংবিধানের সঙ্গে ওনার কোনও সম্পর্ক নেই। এটা খুব দুর্ভাগ্যজনক। দেশ সবাই সংবিধান মেনে চলে আর কিন্তু মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের সংবিধানের উপর কোন বিশ্বাস নেই”।

উল্লেখ্য বিশ্বভারতীতে শতবষ উদযাপন উপলক্ষ্যে প্রধানমন্ত্রীর বিশ্বভারতী সফর বাতিল হয়েছে। তার পরিবর্তে প্রধানমন্ত্রী ভার্চুয়াল ভাবে বিশ্বভারতীতে শতবষ উদযাপনে অংশগ্রহণ করবেন, এদিন এই বিষয়ে আলোচনা করতেই বিশ্বভারতীর উপাচার্যের সঙ্গে বৈঠকে বসেন কৈলাস।

মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের শাসনকালে রাজ্যে শিক্ষার মান অনেকটাই নেমে গেছে বলেও এদিন রাজ্যকে কটাক্ষ করলেন পশ্চিমবঙ্গের বিজেপি পর্যবেক্ষক।

Related Articles

Back to top button
Close