fbpx
দেশহেডলাইন

প্রধানমন্ত্রীর মন্তব্যের ভুল ব্যাখ্যা করা হয়েছে, বিবৃতি কেন্দ্রের

যুগশঙ্খ ডিজিটাল ডেস্ক: সর্বদলীয় বৈঠকে প্রধানমন্ত্রীর বক্তব্য নিয়ে তোলপাড় গোটা দেশের রাজনীতি। ইতিমধ্যে কড়া ভাষায় আক্রমণ শানিয়েছে কংগ্রেস। নরেন্দ্র মোদি যে মন্তব্য করেছেন, তার সম্পূর্ণ ভুল ও অসত্য ব্যাখ্যা দেওয়ার চেষ্টা করা হচ্ছে বলেই কেন্দ্রীয় সরকার শনিবার জানিয়েছে। সরকার এদিন এক বিবৃতিতে জানিয়েছে, প্রকৃত নিয়ন্ত্রণের রেখায় গত ১৫ জুন যে সমস্যা হয়েছিল তার কারণ চিনা সেনারা এলএসির ভিতরে এসে তাঁবু বানাতে চেয়েছিল এবং এই জাতীয় পদক্ষেপ থেকে বিরত থাকতে সেনাবাহিনী অনুরোধ করলেও তারা তা অস্বীকার করেছিল। তারপরেই সেই সংঘাত ঘটে। কিন্তু বর্তমানে কেউই এলএসি’র এপারে নেই। সকলকেই তাড়িয়ে দেওয়া হয়েছে।

এই নিয়ে প্রধানমন্ত্রী মোদির গতকালের মন্তব্যকে ভুল ব্যাখ্যা করা হয়েছে বলেই জানিয়েছে কেন্দ্র। বিরোধীদের তরফ থেকে বলা হয়েছে, চিনা সেনারা সীমান্ত পেরিয়ে এসে ভারতীয় ভূখণ্ডে এসে দখল নিতে চেয়েছিল, একথা সঠিক কিনা। যার মোকাবিলা করতে গিয়েই ২০ জন সৈন্য ভারতের জন্য প্রাণ দিয়েছিলেন। কংগ্রেস সাংসদ রাহুল গান্ধিও আজ সকালে টুইট করে এই বিষয়ে বিস্তারিত জানতে চান। তারপরেই সরকারের তরফ থেকে এই বিবৃতি দেওয়া হয়।

আরও পড়ুন: ভারতকে ভয় দেখানোর চেষ্টা করলে চিন উচিত শিক্ষা পাবে: দিলীপ ঘোষ

প্রধানমন্ত্রী স্পষ্টই বলেছিলেন যে প্রকৃত নিয়ন্ত্রণ রেখা লঙ্ঘন করার যে কোনও প্রয়াসে ভারত কড়া প্রতিক্রিয়া জানাবে। প্রকৃতপক্ষে, তিনি স্পষ্টতই জোর দিয়েছিলেন যে অতীতের এই চ্যালেঞ্জগুলিকে অবহেলা করা হত, তবে ভারতীয় সেনাবাহিনী এখন এলএসি-র কোনও লঙ্ঘনের প্রতিরোধ করবে।’‌ বিবৃতিতে আরও বলা হয়, ‘‌আমাদের সশস্ত্র বাহিনীর সাহসিকতার কারণেই ভারত চীনের বাহিনী প্রবেশ করতে পারেনি। ১৬ বিহার রেজিমেন্টের সেনাদের আত্মত্যাগের কারণেই চিনের সেদিনের প্রয়াস ব্যর্থ হয়েছে এবং চিনা সেনাদের ভারতীয় ভূখণ্ডে ঢোকা আটকানো গিয়েছে।’

Related Articles

Back to top button
Close