fbpx
কলকাতাহেডলাইন

বেওয়ারিশ লাশ নিয়ে সঠিক তথ্য জানাতে হবে অবিলম্বে, ফিরহাদ কে চিঠি সুজনের

কলকাতা: গড়িয়া মহাশ্মশানে দাহ করতে নিয়ে যাওয়া বেওয়ারিশ লাশ গুলি অবিলম্বে পরিচয় জানাতে হবে এবং কি কারণে তাদের মৃত্যু হয়েছে সে তথ্য প্রকাশ্যে আনতে হবে। এই মর্মে দাবি করে কলকাতা পুরসভার প্রশাসক ফিরহাদ হাকিম ও পৌর কমিশনার বিনোদ কুমার কে চিঠি দিয়েছেন বাম পরিষদীয় দলের নেতা সুজন চক্রবর্তী। পাশাপাশি মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় এবং রাজ্যের স্বরাষ্ট্রমন্ত্রীর কাছে লাশগুলোর পরিচয় এবং মৃত্যুর কারণ জানানোর দাবি করে সুজন বাবু। বুধবার সোশ্যাল মিডিয়ায় একটি ভিডিও ভাইরাল হয়। তাতে দেখা যাচ্ছে, গড়িয়ার আদি মহাশ্মশানে একজন কর্মী আঁকশি দিয়ে টেনে পচা-গলা মৃতদেহ গাড়িতে তুলছেন। সেই গাড়িটির গায়ে কলকাতা পুরসভা লেখা রয়েছে। এই সমস্ত মৃতদেহগুলি করোনা আক্রান্ত সন্দেহে বিক্ষোভ দেখাতে থাকে স্থানীয়রা। বাধ্য হয়ে পুনরায় সেই দেহগুলি কে গাড়িতে করে ফিরিয়ে নিয়ে যাওয়া হয়। যদিও এই মৃতদেহগুলি সঙ্গে করোনার কোন সম্পর্ক নেই বলেই স্পষ্ট জানিয়ে দেয় স্বাস্থ্যদফতর।

এদিন চিঠিতে সুজন বাবু লেখেন, “কলকাতা পুরনিগমের এক্তিয়ারভুক্ত গড়িয়া শ্মশানে, গতকাল একসাথে, বহুসংখ্যক মৃতদেহ সৎকার বিষয়ে স্থানীয় মানুষের বিক্ষোভ এবং সেই সংক্রান্ত একটি ভিডিও আমার নজরে এসেছে। গতকাল কোলকাতা পুরনিগমের একটি বিশেষ গাড়ীতে করে হঠাৎ ১৩ টি লাশ নিয়ে যাওয়া হয় গড়িয়া শ্মশানে। পচা- গলা, বিভৎস লাশগুলি দেখে হতচকিত মানুষ ভয় পেয়ে যায় এবং বিক্ষোভ করে। নামানো লাশ তুলে গাড়ী ফেরত চলে যায়।”

আরও পড়ুন: ২৪ ঘন্টায় ৪৪০ করোনা পজিটিভ! মৃত ১০, সুস্থ ২০৯

তিনি আরও লেখেন, “স্বভাবতই, মানুষ সঠিক তথ্য জানতে চায়। প্রশ্ন এই যে,  এই ১৩টি লাশ কাদের? তাদের নাম পরিচয় ঠিকানা কি? নিদিষ্ট স্থানের পরিবর্তে বেওয়ারিশ লাশ গড়িয়া শ্মশানে কেন? মৃতদেহগুলোর সাথে করোনার সম্পর্ক আছে কিনা অথবা গোপনীয় অন্য কারণ কি? নচেৎ অস্বাভাবিক মৃত্যু হিসাবে এগুলি নথিভুক্ত কিনা? নথিভুক্তর সংখ্যা কত? গড়িয়া শ্মশান থেকে ফেরত যাওয়া লাশগুলোর পরিনতি কি? প্রসঙ্গত, সাম্প্রতিক সময়ে বেওয়ারিশ লাশ এবং সৎকার সংক্রান্ত অনেকগুলো অভিযোগ এসেছে।” পাশাপাশি চিঠিতে তাঁর হুঁশিয়ারি, “মানুষের তথ্য জানার অধিকার আছে। উপরোক্ত ঘটনা সম্পর্কে প্রকৃত তথ্য দ্রুত প্রকাশ করুন। নচেৎ জনমানসে বিরক্তি ও সন্দেহ থাকবেই। যথাযথ দায়িত্বপ্রাপ্ত হিসাবে দ্রুত এবং স্পষ্ট নির্দিষ্ট তথ্য প্রকাশ করবন”।

Related Articles

Back to top button
Close