fbpx
পশ্চিমবঙ্গহেডলাইন

সুন্দরবন, সন্দেশখালি, হাসনাবাদে এনডিআর‌এফের মাইকিং প্রচার করে সতর্কবার্তা

শ‍্যাম বিশ্বাস, উওর ২৪ পরগনা: মঙ্গলবার সকাল থেকে সুন্দরবন, হেমনগর, কোস্টাল, সন্দেশখালি, হাসনাবাদে এনডিআর‌এফ মাইকিং করে আম্ফানের
সতর্কবার্তা প্রচার করা হচ্ছে। বিশেষ করে সুন্দরবন লাগোয়া ব্লগগুলিতে নদী বাঁধের পাশে মাইকিং করে প্রচার শুরু করা হয়েছে। ইতিমধ্যে বসিরহাটের জেলার পুলিশ সুপার কংকর প্রসাদ বারুই নিজে এই এলাকাগুলোতে কন্ট্রোল রুম খুলে তদারকি শুরু করেছেন। উপকূলবর্তী প্রতিটি থানাকে অ্যালার্ট করেছেন।
বসিরহাট মহকুমার সন্দেশখালি ১ নম্বর ব্লক, সন্দেশখালি দু’নম্বর ব্লক, হাসনাবাদ, হিঙ্গলগঞ্জ, হেমনগর, কোস্টাল থানা এই পাঁচটা ব্লকে চরম সর্তকতা জারি করা হয়েছে।

পাশাপাশি ৬০,০০০ ত্রিপলের ব্যবস্থা করা হয়েছে। এছাড়া ১ লক্ষ জলের পাউচ মজুদ করা হয়েছে। প্রায় ছয় হাজার মানুষকে ত্রাণ শিবিরে নিয়ে আসা হচ্ছে ।যেহেতু করোনা মহামারী চলছে তাই তাদের কথা মাথায় রেখে তাদের জন্য ৬০০০ মাক্সের ব্যবস্থা করা হয়েছে।

এছাড়া এনডিআরএফ কর্মীদের জন্য ১,০০০, পিপিকিট ও পর্যাপ্ত পরিমাণে স্যানিটাইজারের ব্যবস্থা করা হয়েছে। এই মহাকুমার ১২০ টা ত্রাণ শিবির আছে সেগুলোকে সচল করা হয়েছে।

পাশাপাশি ৫০০, পাকা বাড়ি চিহ্নিত করা হয়েছে যাতে সেখানে দুর্যোগের সময় মানুষজনকে ওই বাড়িগুলোতে রাখা যায়। এছাড়া প্রতিটি ব্লকে নদীপথে একটি করে পেট্রোলিং বোর্ড এর ব্যবস্থা করা হয়েছে । সেইসঙ্গে মাইকিং করে প্রচার চলছে। সব‌ মিলিয়ে আম্ফান নিয়ে চূড়ান্ত প্রস্তুতি নিয়েছে উত্তর ২৪ পরগনার সুন্দরবন লাগোয়া এই ব্লক গুলোতে।

পাশাপাশি বসিরহাটের মহাকুমা শাসক বিবেক ভস্মে, পুলিশ সুপার কংকর প্রসাদ বারুই প্রশাসনকে সতর্ক করেছে। এই সব এলাকায় নদীমাতৃক বহুমুখী আশ্রয় কেন্দ্র গুলিকে ইতিমধ্যে কাজে লাগানো হয়েছে। সেখানে কিছু মানুষকে আশ্রয় দেওয়া হয়েছে।

Related Articles

Back to top button
Close