fbpx
কলকাতাহেডলাইন

এইচআরবিসি থেকে ইস্তফা শুভেন্দুর, নতুন চেয়ারম্যান হলেন কল্যাণ

যুগশঙ্খ ডিজিটাল ডেস্ক:  হুগলি রিভার ব্রিজ কমিশনার্সের (এইচআরবিসি) চেয়ারম্যান পদে ইস্তফা দিলেন রাজ্যের পরিবহণ মন্ত্রী শুভেন্দু অধিকারী। বৃহস্পতিবার ওই ইস্তফার পর তাঁর মন্ত্রিত্ব এবং দলত্যাগের জল্পনা আরও তীব্র হয়েছে। শুভেন্দুর ইস্তফার পর দ্রুত ওই পদে নিযুক্ত হয়েছেন তৃণমূলের প্রথম সারির সাংসদ কল্যাণ বন্দ্যোপাধ্যায়। ‘যদিও এই নতুন নিয়োগ নিয়ে শুভেন্দু কিংবা কল্যাণ কারও পক্ষ থেকেই কিছু মন্তব্য করা হয়নি। কিন্তু এই পদক্ষেপ যে রাজ্য রাজনীতিতে নতুন মাত্রা যোগ করল, তা বলাই চলে। এখন শাসক দলের মধ্যেই গুঞ্জন উঠছে মন্ত্রী পদ কবে যেতে চলেছে শুভেন্দুর। তাহলে কি বলাই যায় তৃণমূলের সঙ্গে বিচ্ছেন এখন সময়ের অপেক্ষা। যদিও তার কোনও উত্তর পাওয়া যায়নি।

কল্যাণ আগেও একাধিক বার এইচআরবিসি-র চেয়ারম্যান পদে ছিলেন। ফলে সে ভাবে দেখলে তাঁর নিয়োগ ‘রুটিন’ বলেও বর্ণনা করা যেতে পারে। কিন্তু অতি সম্প্রতি শুভেন্দু এবং কল্যাণের যে পারস্পরিক বাক্য বিনিময় হয়েছে, তাতে শুভেন্দুর পদত্যাগের পর রাজ্য সরকারের সুপারিশে ওই পদে কল্যাণকে নিয়োগও নিশ্চিত ভাবে ‘রাজনৈতিক বার্তা’ বহন করছে।

কিছু দিন আগেই এক অরাজনৈতিক মঞ্চ থেকে শুভেন্দু অধিকারী জানিয়েছিলেন, “কোনও জনপ্রতিনিধি আমাকে বা আমার পরিবারকে আক্রমণ করলে সমর্থন করবেন?” তাত্‍পর্যপূর্ণ বিষয় হল, শুভেন্দু অধিকারীকে দলে ধরে রাখতে মরিয়া চেষ্টা চালিয়েছিল তৃণমূল কংগ্রেস। দু’বার বৈঠক করেছেন সাংসদ সৌগত রায়। ফের আরও একবার বৈঠকে বসার সম্ভাবনা তৈরি হয়েছিল। তারই মধ্যে শুভেন্দুর এই পদত্যাগ জল্পনা বাড়িয়ে দিল। তবে তিনি পদত্যাগ করেছেন? নাকি তাঁকে পদত্যাগ করতে বলা হল সে ব্যাপারে মুখে কুলুপ এঁটেছেন দুই পক্ষই। যদিও শুভেন্দু শিবির সূত্রে বক্তব্য, তিনি পদত্যাগ করেছেন। গত কয়েকদিন ধরেই প্রশাসনের সঙ্গে দূরত্ব বাড়ছিল শুভেন্দুর। এমনকি ধর্মঘটের দিনে পরিবহণ দফতরেও দেখা যায়নি মন্ত্রীকে। সেই দিনেই এবার পরিবহণ দফতরের পদ থেকে সরলেন শুভেন্দু। এলেন সেই কল্যাণ বন্দোপাধ্যায়।

সরকারি ওই পদ থেকে শুভেন্দুর ইস্তফার পর তৃণমূলের একাধিক প্রথমসারির নেতা জানিয়েছেন, তাঁরা মনে করছেন, এই ইস্তফা শুভেন্দুর দলত্যাগের প্রক্রিয়ার প্রথম ধাপ। এর পর শুভেন্দু মন্ত্রিত্বে ইস্তফা দেবেন। অতঃপর তাঁর দলত্যাগ স্রেফ সময়ের অপেক্ষা। দলীয় সংগঠনের শীর্ষ স্তরে জড়িত এক নেতার কথায়, ”আমরা শুনেছি, এইচআরবিসি-র চেয়ারম্যানের পদ থেকে ইস্তফা দেওয়ার পর শুভেন্দু হলদিয়া উন্নয়ন পর্ষদের শীর্ষপদেও ইস্তফা দেবে। তার পর মন্ত্রিত্বে ইস্তফা দিয়ে নিজের ভবিষ্যত্‍ পরিকল্পনা প্রকাশ্যে ঘোষণা করবে।” সূত্রের খবর, বৃহস্পতিবার হলদিয়া উন্নয়ন পর্ষদের জরুরি বৈঠক হয়েছে। সেখানে চেয়ারম্যান-সহ বিবিধ বিষয়ে আলোচনা হয়েছে। কিন্তু শুভেন্দু পর্ষদের চেয়ারম্যানের পদ ছেড়ে দিয়েছেন, রাত পর্যন্ত এমন খবরের সমর্থন মেলেনি।

Related Articles

Back to top button
Close