fbpx
কলকাতাহেডলাইন

তৃণমূল আর ঘুরে দাঁড়াতে পারবে না: স্বপন দাশগুপ্ত

শংকর দত্ত, কলকাতা : রাজ্যে করোনা মোকাবিলায় মমতা সরকার যে অনেকটাই ব্যর্থ এ কথা বারবার উঠে আসছে রাজ্য বিজেপির প্রথম সারির নেতাদের মন্তব্যে। বিজেপির রাজ্য সভাপতি দিলীপ ঘোষ থেকে রাহুল সিনহা কিংবা মুকুল রায়েরা প্রতিদিনই নিয়ম করে রাজ্যের সমালোচনা করেছেন। এবার করোনা নিয়ে খোলামেলা বক্তব্য রাখলেন বিজেপির বুদ্ধিজীবী সাংসদ স্বপন দাশগুপ্ত। একই সঙ্গে তৃণমূলকে বিঁধেও দিশা দেখালেন নিজের দলকেও।

 

 

কী বললেন তিনি ? কোভিড-১৯ এবং পশ্চিমবঙ্গের ভবিষ্যৎ নিয়ে আসোসিয়েশন ফর ডেভেলপমেন্ট অফ বেঙ্গল বেঙ্গলের আলোচনায় তাঁর মূল বক্তব্য, ‘বর্তমান পরিস্থিতি রাজ্যে তৃনমূল আর কোনোভাবেই ঘুরে দাঁড়াতে পারবে না। একদিকে রেশন দুর্নীতি ও অন্যদিকে করোনার মৃতের তথ্য গোপন করা এগুলো মানুষ মেনে নেবে না। ‘ যে কথা বলার সঙ্গে সঙ্গেই তিনি নিজের দলের উদ্দেশ্যে বলেন, ‘এটা বিজেপি কর্মীদের কাছে একটা দারুন সুযোগ। নিজেদের প্রমান করবার এমন সুযোগ আর সহজে আসবে না।’। একই সঙ্গে তাঁর বার্তা, ‘ তবে মানুষ কী ধরনের বিকল্প চাইছেন,সেটাও আমাদের ভেবে দেখতে হবে।’

 

তৃণমূল সুপ্রিমোর বিরুদ্ধে তাঁর ঘোরতর অভিযোগ, ‘আসলে এই পরিস্থিতিতে বিরোধীদের কোণঠাসা করে নিজে সমস্ত কৃতিত্ব নিতে গিয়ে নিজেই মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় কোণঠাসা হয়ে গেছেন।’ তাঁর তীব্র অভিযোগ, ‘কোভিড মোকাবিলায় রাজ্য সরকার পুরোপুরি ব্যর্থ।উনি আসলে এই বিষয়টাকেও সাইক্লোন বা বন্যা বিপর্যয় পরিস্থিতির মতো ভেবেছিলেন।’ নিজের দল বিজেপির তাঁর টোটকা, ‘আমাদের শুধু আন্দোলন করলেই চলবে না।কৃষি থেকে শিল্প সমস্ত ক্ষেত্রেই মানুষকে কী বিকল্প দেওয়া যেতে পারে তা নিয়ে ভাবতে হবে। এবং এই ভাবনা মানুষের মনে তুলে ধরতে হবে।’

 

 

প্রসঙ্গত বিজেপির এই রাজ্যসভার সাংসদের রাজ্য এবং কেন্দ্রীয় স্তরে শিক্ষিত বুদ্ধিজীবী ভাবমূর্তি যথেষ্ট স্বীকৃতি। তিনি যে সব ব্যাপারে সব সময় মুখ খোলেন তেমনটা নয়। তবে রাজ্যের কঠিন পরিস্থিতিতে তিনি বাংলার সরকারকে তিরবিদ্ধ করতে ছাড়েন না। একই সঙ্গে রাজ্য বিজেপির নানা কার্যকলাপ প্রসঙ্গেও তিনি নিজের দলের বিভিন্ন নেতাদের প্রসঙ্গে তির্যক মন্তব্য করে থাকেন। যে নিয়ে দলের মধ্যেও তিনি বহু ক্ষেত্রে বিতর্কিত থেকে যান।

Related Articles

Back to top button
Close