fbpx
দেশহেডলাইন

সংক্রমণের জের খুলছে না তাজমহল-সহ আগ্রার স্মৃতিসৌধগুলি

যুগশঙ্খ ডিজিটাল ডেস্ক: দিল্লিতে বেড়েই চলেছে করোনা সংক্রমণের মাত্রা। কোনও ভাবেই বাঁধ মানছে না মারণ ভাইরাসের গতি। তাই সংক্রমণের মাত্রা রোধে খোলা হচ্ছে না তাজমহল-সহ আগ্রার বাকি স্মৃতিসৌধগুলি। আপাতত তাজমহল খোলার পরিকল্পনা বাতিল করছে সরকার। কথা ছিল আনলকের দ্বিতীয় পর্বে দেশকে আরও স্বাভাবিক ছন্দে ফেরানো হবে। খুলে দেওয়া হবে তাজমহল-সহ আগ্রার অন্যান্য স্মৃতিসৌধগুলি । কিন্তু যে হারে সংক্রমণ বাড়ছে তা দেখে রীতিমত উদ্বেগে চিকিৎসকরা। আনলকের দ্বিতীয় পর্বে যেন লাফিয়ে বাড়ছে আক্রান্তের সংখ্যা। করোনা ভাইরাসের সংক্রমণে রোজই নয়া রেকর্ড গড়ছে দেশ। এমতাবস্থায় জনসাধারণের প্রাণের ঝুঁকি নিতে নারাজ দিল্লি সরকার। তাই রবিবার রাতে নয়া গাইডলাইন প্রকাশ করে আগ্রার সকল স্মৃতিসৌধ বন্ধ রাখারই সিদ্ধান্ত জারি করা হয়।

কেন্দ্রীয় সংস্কৃতি ও পর্যটন মন্ত্রী প্রহ্লাদ প্যাটেল টুইট করে জানিয়েছিলেন, ৬ জুলাই থেকে দেশের সমস্ত স্মৃতিসৌধ খুলে দেওয়া হচ্ছে। তবে করোনার পরিস্থিতি বিচার করে রাজ্য সরকার এক্ষেত্রে সিদ্ধান্ত নিতে পারে বলে জানিয়েছে কেন্দ্র। তবে কতদিনের জন্য এই স্মৃতিসৌধগুলি বন্ধ রাখা হবে সেই বিষয়ে কোনও নির্দিষ্ট তথ্য প্রকাশ করা হয়নি। রবিবার রাতেই স্মৃতিসৌধগুলির সামনে হিন্দিতে একটি নোটিশ লিখে রাখা হয়। সেখানে বলা হয় যে, জনসাধারণের স্বার্থেই আগ্রার স্মৃতিসৌধগুলি বর্তমানে পর্যটকদের জন্য খোলা হবে না। তাজমহলের আশেপাশের এলাকা সংক্রমিত হিসেবে চিহ্নিত হওয়ায় সেখানকার হোটেল, দোকান সবই আপাতত বন্ধ রাখা হয়েছে।

আরও পড়ুন: চিনমুক্ত আত্মনির্ভর ভারত গড়ার পথ…..

রবিবার রাতেই দিল্লিতে মোট করোনা আক্রান্তের সংখ্যা পৌঁছয় ১ লাখের দোরগোড়ায়। ফলে এই অবস্থায় পর্যটনশিল্পে অনুমতি দেওয়ার অর্থ সাধারণ মানুষকে মৃত্যুর মুখে ঢেলে দেওয়া। স্বাস্থ্য ও পরিবার কল্যাণ মন্ত্রক সূত্রে জানা যায়, সপ্তাহান্তে মাত্র একদিনেই অতীতের সব রেকর্ডকে ছাপিয়ে দেশে ২৪ হাজার ৮৫০ জন করোনায় আক্রান্ত হন। এমনকি বিশ্বে আক্রান্তের পরিসংখ্যানের নিরিখে রাশিয়াকে ছাপিয়ে তৃতীয় স্থান দখল করেছে ভারত। ইতিমধ্যেই সংক্রমণ রোধে দিল্লি কন্টেনমেন্ট জোন, সংক্রমিত এলাকাগুলিকে চিহ্নিত করে সেই স্থানে লকডাউনের কড়া নিয়ম পালন করা হচ্ছে। জরুরি পরিষেবা ছাড়া এলাকাগুলিতে প্রায় সবই বন্ধ করে দেওয়া হয়েছে।

Related Articles

Back to top button
Close