fbpx
গুরুত্বপূর্ণপশ্চিমবঙ্গহেডলাইন

লক্ষ্য ২০২১, শাসকদলের পালটা দলীয় কর্মীদের চাঙ্গা করতে ময়দানে নামল বিজেপি

দিব্যেন্দু রায়, কাটোয়া: শাসকদলের পালটা দলীয় কর্মীদের চাঙ্গা করতে ময়দানে নামল পূর্ব বর্ধমান জেলা বিজেপি নেতৃত্ব ।  ২০২১ সালের  বিধানসভা নির্বাচনকে পাখির চোখ করে অনেক আগেই আসরে নেমে পড়েছে রাজ্যের শাসকদল তৃনমুল কংগ্রেস  । ইতিমধ্যে কাটোয়া মহকুমার অন্তর্গত  মঙ্গলকোট ও কেতুগ্রাম বিধানসভা এলাকায়  একাধিক বুথভিত্তিক কর্মী সম্মেলন করে গেছেন বীরভূম জেলার তৃণমূলের সভাপতি অনুব্রত মণ্ডল ৷

তিনি নেতা-কর্মীদের মনোবল বাড়ানোর পাশাপাশি  ভোটারদের বোঝানোর জন্য দলীয় কর্মীদের গাইডলাইনও ঠিক করে দিয়ে গেছেন  । এবার একই লক্ষ্যে আসরে নেমে পড়ল বিজেপির পুর্ব বর্ধমান জেলা নেতৃত্ব । মঙ্গলবার কেতুগ্রাম বিধানসভা এলাকার বিজেপির সমস্ত মন্ডল সভাপতি,শক্তি কেন্দ্রের প্রমুখ ও জেলার পদাধিকারী দের নিয়ে একটি বিশেষ বৈঠকের আয়োজন করা হয়েছিল । কাটোয়া শহরের কাছারি রোডে জেলা কার্যালয়ে আয়োজিত এই বৈঠকে উপস্থিত ছিলেন বিজেপির পুর্ব বর্ধমানের সাংগঠনিক কাটোয়া জেলার সভাপতি কৃষ্ণ ঘোষ  ও  জেলা পর্যবেক্ষক সুবীর নাগসহ জেলার অনান্য নেতৃত্ববর্গ ।

    আরও পড়ুন: ফের বড়সড় সাফল্য, বিভিন্ন দল থেকে ৩০০ জন কর্মী যোগ দিলেন বিজেপিতে

কৃষ্ণ ঘোষ বলেন, “২০১৯ সালের লোকসভা নির্বাচনের সময় তৃণমূল  সমস্ত বুথ দখল করে নিয়েছিল । আগামী বিধানসভা নির্বাচনে যাতে তার পুনরাবৃত্তি যাতে আর না হয় তাই আমরা সমস্ত বুথে বুথ কমিটি মজবুত করতে বিশেষ নজর দিয়েছি । প্রতি বুথে যাতে ২৫ জন কার্যকর্তা থাকে সেই লক্ষ্যেই আমরা আমরা এগুচ্ছি । সেই কারণে আগামী বিধানসভা নির্বাচনের আগে বুথ পিছু ৫০০ জন নতুন সদস্য নিয়োগের টার্গেট নিয়েছি আমরা ।”

উল্লেখ্য, মঙ্গলকোট ও কেতুগ্রাম বিধানসভা পুর্ব বর্ধমান জেলার অন্তর্ভুক্ত হলেও এই দুই বিধানসভা বোলপুর লোকসভা কেন্দ্রের মধ্যে পড়ে । কেতুগ্রাম বিধানসভার মধ্যে রয়েছে দুটি ব্লক ।  বিগত লোকসভা নির্বাচনের নিরিখে কেতুগ্রাম বিধানসভা থেকে তৃনমুল জয়লাভ করেছিল । তবে সেই জয় এসেছিল শুধু কেতুগ্রাম-১ ব্লক থেকে ।  কেতুগ্রাম-২ ব্লকে  ৫৮০০ ভোটে এগিয়ে ছিল বিজেপি ।

কৃষ্ণ ঘোষের কথায়, “কেতুগ্রাম-১ব্লকের সমস্ত বুথ দখল করে নিয়েছিল  তৃনমুল । কিন্তু কেতুগ্রাম-২ ব্লকে  আমাদের সংগঠন মজবুত থাকার পাশাপাশি মানুষ স্বতঃস্ফূর্তভাবে রুখে দাঁড়ানোয় ওরা বুথ দখল করতে পারেনি ৷ তাই কেতুগ্রাম-২ থেকে আমরা জিতেছি ।  সেই কারনে কেতুগ্রাম-১ ব্লকে  বুথ মজবুত করার দিকে আমরা বিশেষ নজর দিয়েছি ।” পাশাপাশি তিনি বলেন, “২০২১ সালে রাজ্যে আমরা ক্ষমতায় আসছি ।  কেতুগ্রাম বিধানসভা থেকেও আমাদের জয় চাই । তবে বুথ মজবুত করার পাশাপাশি কেন্দ্রীয় সরকারের উন্নয়নমুলক কাজ ও রাজ্যের তৃনমুল সরকারের দুর্নীতি ও সন্ত্রাসের খতিয়ান সাধারন মানুষের মধ্যে তুলে ধরার জন্য দলের কার্যকর্তাদের বার্তা দেওয়া হয়েছে । ২০২১ সালের নির্বাচন আমাদের কাছে চ্যালেঞ্জ ।”

Related Articles

Back to top button
Close