fbpx
পশ্চিমবঙ্গহেডলাইন

অনাথদের নিয়ে জন্মদিন পালন শিক্ষকের মেয়ের

ভাস্করব্রত পতি, তমলুক : জন্মদিন পালনে ঘরে কেক কাটাতে বিশ্বাসী নয় তাঁরা। চব্য চোষ্য খাওয়াও নয়। অন্যভাবে জন্মদিন পালনে দৃষ্টান্ত গড়লেন রসায়নের শিক্ষক অলক মাইতি। মেয়ে পাউলির ১১ তম জন্মদিনে পাঁশকুড়ার মাইসোরার ‘মৌচাক’ সেবাশ্রমে অনাথ শিশুদের সঙ্গে সময় কাটালেন পাঁশকুড়ার মাইতি পরিবার।

মেদিনীপুর কুইজ কেন্দ্র সোশ্যাল ওয়েলফেয়ার সোসাইটি উদ্যোগে মাইতি পরিবারের সহযোগিতায় পাউলির জন্মদিন উপলক্ষে একটি বই রাখার রেক, ৩৫ টি বই, বিভিন্ন শিক্ষা সামগ্রী তুলে দেওয়া হয় সেবাশ্রমের অনাথ শিশুদের হাতে।

সেইসঙ্গে সেবাশ্রমের অনাথ শিশু ও বৃদ্ধদের মধ্যাহ্নভোজের আয়োজনও করা হয়। সংগঠনের পক্ষ থেকে উপস্থিত ছিলেন সংগঠনের কেন্দ্রীয় কমিটির সভাপতি রিঙ্কু চক্রবর্তী, সম্পাদক সুজন বেরা এবং মৌসম মজুমদার সহ দুই মেদিনীপুরের সম্পাদক, সহ-সভাপতি সহ অন্যান্য সদস্য সদস্যবৃন্দ।

আশ্রমের অনাথ শিশুদের সাথে একইসাথে দুপুরে খাওয়া-দাওয়া ও সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠানের মাধ্যমে জন্মদিন পালিত হয়। পাউলির মা ঝুম্পা বিশ্বাস মাইতি বলেন, “বিশিষ্ট শিক্ষক তথা সমাজসেবী মৃণাল সুন্দর পাত্রের আন্তরিক প্রচেষ্টায় এবং ত্যাগের মাধ্যমে এই সেবাশ্রম গড়ে উঠেছে। সেটি তিনি তা চালিয়েও যাচ্ছেন সুন্দর ভাবে। মনোরম আশ্রমিক পরিবেশে মেয়ের জন্মদিন পালন যেন আমাদের পরিবারের ঈশ্বর দর্শন হলো”।

সপরিবারে উপস্থিত ছিলেন সংগঠনের শ্যামসুন্দরপুর পাটনা হাই স্কুলের বিশিষ্ট শিক্ষক, শিক্ষারত্ন গৌতম বোস। তাঁর কথায় “এটি একটি অত্যন্ত প্রশংসনীয় উদ্যোগ। মাইতি পরিবারকে অভিনন্দন। এরকম উদ্যোগ প্রত্যেকে নিলে সমাজটাই বদলে যাবে”।

Related Articles

Back to top button
Close