fbpx
পশ্চিমবঙ্গশিক্ষা-কর্মজীবনহেডলাইন

শিক্ষক-শিক্ষিকারা যাবেন এবার ছাত্র-ছাত্রীদের বাড়িতে বাড়িতে, ঘোষণা জেলা প্রাথমিক শিক্ষা সংসদের

প্রদীপ্ত দত্ত, সিউড়ি : লকডাউনের পর থেকে দীর্ঘদিন ধরে বন্ধ জেলার শিক্ষা প্রতিষ্ঠানগুলো । অনলাইন পাঠের মাধ্যমে বেশ কিছু সরকারি ও বেসরকারি স্কুলগুলোতে পড়াশুনা চললেও তাতে স্বাভাবিক হয়নি শিক্ষা ব্যবস্থা।

 

 

স্বচ্ছল পরিবারের ছেলেমেয়েরা অনলাইনের সুফল কিছুটা পেলেও জেলার অধিকাংশ সাধারণ পরিবারের ছেলেমেয়েদের পড়াশোনা একেবারেই বন্ধ। সবচেয়ে বেশি ক্ষতিগ্ৰস্ত হচ্ছে প্রাথমিক স্তরের পড়ুয়াদের পড়াশোনা। এখনও জেলার অধিকাংশ ছেলেমেয়েরা পড়ে সরকারি প্রাথমিক স্কুলগুলোতে। এইসব পড়ুয়াদের সমস্যা মেটাতে অভিনব উদ্যোগ নিয়েছে বীরভূম জেলা প্রাথমিক শিক্ষা সংসদ।

 

 

 

বীরভূম জেলা প্রাথমিক শিক্ষা সংসদের চেয়ারম্যান প্রলয় নায়েক জেলার বিভিন্ন শিক্ষক সংগঠনের প্রতিনিধিদের আবেদন জানান , তাঁরা যাতে পড়ুয়াদের বাড়ি বাড়ি গিয়ে পঠনপাঠনের বিষয়ে খোঁজ নেন। যতদিন না স্কুলের পড়াশোনা স্বাভাবিক হচ্ছে। এতে পড়ুয়ারা উজ্জীবিত হবে এবং স্কুল বন্ধের কারণে পড়াশোনায় যে খামতি গুলো হচ্ছে সেগুলো সমাধান করা যাবে। প্রাথমিক শিক্ষা সংসদের চেয়ারম্যানের আবেদনে সাড়া দিয়ে শিক্ষা সংগঠনগুলো জানায় তাঁরা এই উদ্যোগে সহমত। পাঠ্যসামগ্ৰীর প্রয়োজন পড়লে শিক্ষক শিক্ষিকারা সহযোগিতা করবেন বলে জানা গিয়েছে।

 

 

 

প্রলয় নায়েক জানিয়েছেন, ” আমাদের জেলায় ৩ লক্ষের বেশি প্রাথমিক শিক্ষা স্তরে ছাত্রছাত্রীরা আছে। যাদের মধ্যে বেশিরভাগই গ্ৰামাঞ্চলের ।শিক্ষক সংগঠনগুলোর সাথে আলোচনা হয়েছে। যাতে শিক্ষক শিক্ষিকারা বাড়ি বাড়ি গিয়ে পঠনপাঠনের তদারকি করতে পারেন ও পাঠ্য সামগ্ৰী পৌঁছে দিতে পারেন। এর সঙ্গে অভিভাবকদেরও সচেতন করা হবে ।”
সেইসঙ্গে তিনি জানান , আগামী ২২ তারিখ থেকে  বাড়ি গিয়ে প্রাথমিক স্তরের পড়ুয়াদের পড়াশোনা তদারকির এই নতুন কর্মসূচি শুরু হবে জেলায় ।

Related Articles

Back to top button
Close