fbpx
পশ্চিমবঙ্গহেডলাইন

পরিযায়ী শ্রমিকদের জন্য কোয়ারেন্টাইন সেন্টার তৈরি নিয়ে উত্তেজনা ঘোলায়

অলোক কুমার ঘোষ, ব্যারাকপুর : উত্তর ২৪ পরগনার ঘোলা মুরাগাছায় শশীভূষণ হাই স্কুল এলাকায় পরিয়ায়ী শ্রমিকদের জন্য কোয়ারেন্টাইন সেন্টার করা নিয়ে এলাকায় উত্তেজনা ছড়িয়ে পরল।

পরিযায়ী শ্রমিকদের জন্য কোয়ারেন্টাইন সেন্টার যাতে চালু না করা হয় তার দাবিতে শনি বার বিক্ষোভ করলেন সোদপুর মুরাগাছাএলাকার বাসিন্দারা । দেশের বিভিন্ন প্রান্ত থেকে দলে দলে নিজেদের এলাকায় ফিরে আসছেন পরিযায়ী শ্রমিকরা। উত্তর ২৪ পরগনার বিভিন্ন এলাকা তেও ফিরে আসছেন পরিযায়ী শ্রমিকরা। আর এতে ক্রমেই জেলা তে বাড়ছে করোনা আক্রান্তের সংখ্যা ও। এই সমস্যার হাত থেকে রেহাই পেতে ও জেলা তে করোনা আক্রান্তের সংখ্যা নিয়ন্ত্রন করতে সম্প্রতি জেলা প্রশাসন বেশ কয়েকটি সরকারি স্কুল কে ভিন রাজ্য থেকে ফিরে আসা পরিযায়ী শ্রমিকদের জন্য কোয়ারেন্টাইন সেন্টার হিসাবে চিহ্নিত করেছিল। যাতে পরিযায়ী শ্রমিকরা বাইরে থেকে ফিরে এসে নিজেদের গ্রামে বা বাড়িতে না গিয়ে ১৪ দিন ওই স্কুল গুলো তেই কোয়ারে ন্টাইন থাকতে পারে যাতে তারা কোন ভাবে করোনা আক্রান্ত হলে তারা তাদের পরিবার বা এলাকাতে ভাইরাস ছড়াতে না পারে।

প্রশাসনের এই সিদ্ধান্ত অনুযায়ী কোয়ারেন্টাইন  সেন্টারের হিসেবে মুরাগাছার শশীভূষণ হাই স্কুলকে মনোনীত করা হয়েছিল। কিন্তু এই খবর ছড়িয়ে পড়তেই এলাকায় আতঙ্ক ছড়িয়ে পড়ে। আতাংকিত এলাকার বাসিন্দারা ওই স্কুলে পরিযায়ী শ্রমিকদের জন্য কোন কোয়ারাইন্টাইন সেন্টার খুলতে দিতে চান না।তাদের আশঙ্কা এতে করোনা ভাইরাসের প্রকোপ আরো ছড়িয়ে পরতে পারে। এদিন সেই স্কুলের সামনেই বিক্ষোভ করলেন স্থানীয় বাসিন্দারাই।

বাসিন্দাদের অভিযোগ তারা শান্তিপূর্ন ভাবে বিক্ষোভ করবার সময় ঘোলা থানার পুলিশ বিক্ষোভকারী দের ওপর ব্যাপক লাঠিচার্জ করেছে এবং লাঠিচার্জ এর ফলে ৪ জন আহত হয়েছে। এরপর পরিস্থিতি সামাল দিতে ঘটনাস্থলে পৌঁছে যান ব্যারাকপুর ২ পঞ্চায়েত সমিতির সভাপতি সুপ্রিয়া ঘোষ। এরপর তিনি এলাকার বাসিন্দাদের  আলোচনার মাধ্যমে সমস্যা সমাধানের আশ্বাস দিলে বিক্ষোভ কারীরা হটে যান। তবে এলাকায় উত্তেজনা থাকায় পুলিশ পিকেট রয়েছে।  এই ঘটনায় ইতিমধ্যে দুজনকে আটক করেছে ঘোলা থানার পুলিশ ।

Related Articles

Back to top button
Close