fbpx
পশ্চিমবঙ্গহেডলাইন

তৃণমূলের গোষ্ঠী কোন্দলে ফের উত্তেজনা বাসন্তীতে, এলাকায় পুলিশ পিকেট

হরিপদ মণ্ডল, বাসন্তী: তৃণমূলের দুই গোষ্ঠীর মধ্যে সংঘর্ষে নতুন করে উত্তেজনা ছড়াল দক্ষিণ ২৪ পরগনার বাসন্তী থানা এলাকায়শুক্রবার রাত থেকেই ফুলমালঞ্চ গ্রাম পঞ্চায়েত এলাকার পানিখালি বাজারে গণ্ডগোলের সূত্রপাত হয়। দফায় দফায় দুপক্ষের মধ্যে সংঘর্ষের ঘটনায় মোট চারজন আহত হয়েছেন। আহতদের মধ্যে দুজনের অবস্থা আশঙ্কাজনক। তাঁদেরকে উদ্ধার করে ক্যানিং মহকুমা হাসপাতালে চিকিৎসার জন্য পাঠানো হয়েছে। ঘটনাকে কেন্দ্র করে এলাকায় উত্তেজনা থাকায় পুলিশ পিকেট বসানো হয়েছে।

যুব তৃণমূলের অভিযোগ, শুক্রবার রাতে দুই যুব তৃণমূল কর্মীকে মারধর করেন ফুলমালঞ্চ গ্রাম পঞ্চায়েতের বর্তমান প্রধান ইন্ চার্জ শঙ্কর সর্দার ও তার অনুগামীরা। যদিও সেই অভিযোগ অস্বীকার করেছেন শঙ্কর। পাল্টা তিনি অভিযোগ করেন, শনিবার সকালে পানিখালি বাজারে তৃণমূল কর্মীরা গেলে সেখানে তাদের উপর হামলা চালায় যুব তৃণমূল নেতা নাসির খান ও তাঁর অনুগামীরা। এই ঘটনাকে কেন্দ্র করে শনিবার সকাল থেকেই এলাকায় উত্তেজনা ছড়িয়েছে।

ঘটনার খবর পেয়ে বাসন্তী থানার পুলিশ ঘটনাস্থলে এসে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আনে। এলাকায় উত্তেজনা থাকায় পুলিশি টহলদারি চলছে। যুব তৃণমূল এলাকায় সন্ত্রাস চালাচ্ছে বলে অভিযোগ তুলেছেন এলাকার তৃণমূল কর্মীরা। যুব তৃণমূল নেতা ইউসুফ আনসারী খুনের ঘটনায় জেল খাটছে। তার অবর্তমানে আদিবাসী সম্প্রদায়ের ছেলে শঙ্করকে প্রধান করা হয়েছে বলে তাদের উপর যুব তৃণমূল হামলা চালাচ্ছে বলে অভিযোগ এলাকার তৃণমূল নেতৃত্বর।

পাল্টা যুব তৃণমূলের অভিযোগ, এলাকায় পঞ্চায়েতের ক্ষমতা পেয়েই যুব তৃণমূল কর্মীদের উপর হামলার পরিকল্পনা করেছে শঙ্কর ও তাঁর অনুগামীরা। এলাকার মানুষের কাছ থেকে বিভিন্ন সরকারি প্রকল্পের সুযোগ পাইয়ে দেওয়ার নাম করে টাকা নেওয়ার অভিযোগ ও রয়েছে শঙ্করের বিরুদ্ধে। এই ঘটনার প্রতিবাদ করলে যুব তৃণমূল কর্মীদের উপর হামলা শুরু হয়। দু পক্ষই এ বিষয়ে বাসন্তী থানায় অভিযোগ দায়ের করেছে। অভিযোগের ভিত্তিতে ঘটনার তদন্ত শুরু করেছে বাসন্তী থানার পুলিশ। এলাকায় উত্তেজনা থাকায় বসানো হয়েছে পুলিশ পিকেট।

Related Articles

Back to top button
Close