fbpx
পশ্চিমবঙ্গহেডলাইন

একাধিক দাবিতে আন্দোলনে নামল সারা ভারত ফরওয়ার্ড ব্লক 

নিজস্ব সংবাদদাতা, দিনহাটা: কৃষক স্বার্থে  কৃষি বিল  বাতিলের দাবির পাশাপাশি করোনা ভাইরাস মোকাবিলার   রাজ্য সরকারের বিরুদ্ধে ব্যর্থতার  অভিযোগ তুলে ব্লক ভিত্তিক সর্বদলীয় কমিটি  গঠন সহ একাধিক দাবিতে আন্দোলনে নামল   সারা ভারত ফরওয়ার্ড ব্লক।  দলের পক্ষ থেকে বৃহস্পতিবার দিনহাটা ১ ব্লকের বিডিও সৌভিক চন্দর সঙ্গে দেখা করে তাঁর হাতে এই দাবিপত্র তুলে দেওয়া হয়। এই ডেপুটেশনের  নেতৃত্ব দেন ফরওয়ার্ড ব্লকের জেলা সম্পাদক মন্ডলীর সদস্য যুবলীগের রাজ্য সম্পাদক আব্দুর রউফ, ফরওয়ার্ড ব্লক দলের দিনহাটা পশ্চিম লোকাল সভাপতি শ্যামল ধর, সম্পাদক আজগর আলী, পূর্ব লোকাল সম্পাদক বিকাশ মণ্ডল, দিনহাটা শহর সম্পাদক অমিত মিত্র, যুবলীগের দিনহাটা মহকুমা সম্পাদক রৌশন হাবিব প্রমুখ।

এদিন বিডিও অফিসে বিক্ষোভ চলাকালীন এক প্রতিনিধি দল বিডিওর সঙ্গে দেখা করে তার হাতে দাবিপত্র তুলে দেন। দলের ওই দাবি পত্রে কৃষি বিল বাতিল ছাড়াও অতীতে সর্বস্তরের গরিব বিপন্ন মধ্যবিত্ত পরিবারের নিত্য সামগ্রীসহ খাদ্যদ্রব্য আগামী এক বৎসর বিনামূল্যে দেওয়ার ব্যবস্থা, কাজ হারিয়ে ঘরে ফেরা কর্মসন্ধান শ্রমিকদের সরকারি প্রকল্পে যোগ দেওয়া, নিম্নআয়ের পরিবারদের মাসিক ১০ হাজার টাকা ভাতা সহ প্রভৃতি দাবি তুলে ধরা হয়।

[আরও পড়ুন- রাজ্যপালের নামে বিধাননগর পূর্ব থানায় অভিযোগ দায়ের শিবসেনার]

ফরওয়ার্ড ব্লক নেতা আব্দুর রউফ বলেন, করোনা মোকাবিলায় রাজ্য সরকার ব্যর্থ। এই মহামারিতে সমস্যায় পড়েছেন সাধারণ মানুষ। কাজেই এই রোগ মোকাবিলার জন্য মানুষকে আরও সচেতন করে তুলতে ব্লক ভিত্তিক একটি সর্বদলীয় কমিটি ও স্বেচ্ছাসেবক বাহিনী গড়ে তোলা দরকার। অথচ সরকার বিষয়টির উপর গুরুত্ব দিচ্ছে না।  করোনা আবহে কাজ হারিয়ে ভিন রাজ্য থেকে ফিরে এসেছেন লক্ষ লক্ষ শ্রমিক। রাজ্য সরকার প্রতিশ্রুতি দিয়েছিল তাদের জন্য কাজের ব্যবস্থা করা হবে। অথচ তারা কাজ পাচ্ছে না। কর্মহীন হয়ে ফিরে আসা শ্রমিকরা চরম সমস্যার মধ্যে পড়েছেন। বাধ্য হয়ে  অনেকেই  কাজের সন্ধানে ফের ভিন রাজ্যে পাড়ি দিচ্ছেন। এদিন দলের পক্ষ থেকে বিডিওকে আট দফা দাবি পত্র তুলে দেওয়া হয়। দাবিগুলি নিয়ে প্রয়োজনীয় পদক্ষেপ গ্রহণ করা না হলে আগামীতে আন্দোলনকারী দুর্বল করে তোলার ডাক দেওয়া হয়। ব্লকের বিডিও সৌভিক চন্দ বলেন, দাবি পত্র উর্দ্ধতন কর্তৃপক্ষের কাছে পাঠিয়ে দেওয়া হচ্ছে।

 

Related Articles

Back to top button
Close