fbpx
পশ্চিমবঙ্গহেডলাইন

বনাঞ্চল বৃদ্ধি করার লক্ষ্যে বনমহোৎসব পালন বৈকুন্ঠপুর বনবিভাগের

কৃষ্ণা দাস, শিলিগুড়ি: বৈকুন্ঠপুর বনবিভাগের তরফে অরন্য সপ্তাহ পালন করা হল শিলিগুড়িতে। মঙ্গলবার শিলিগুড়ির বাঘাযতীন পার্কে বেশ কয়েকটি গাছ লাগিয়ে এই অরন্য সপ্তাহ পালন করা হল। পাশাপাশি সুসজ্জিত ট্যাবলয়েট গোটা শহর পরিক্রমা করানো হয়। যার মাধ্যমে সকলকে গাছ সহ বনাঞ্চলের প্রয়োজনীয়তার সম্পর্কে সচেতন করা হয়৷ পাশাপাশি বেশ কিছু গাছ যেমন মেহগনি, বকুল, রাধাচুড়া, চালতা গাছের চারা বিনামুল্যে বিতরন করা হয়।

জানা গিয়েছে, মূলত প্রতি বছর ১৪ থেকে ২০ জুলাই অরন্য সপ্তাহ পালন করা হয়ে থাকে। কিন্তু এ বছর করোনা আবহে শিলিগুড়িতে লকডাউন থাকার ফলে সে সময় এই বন মহোৎসব তথা অরণ্য সপ্তাহ পালন করা সম্ভব হয়নি। তাই এদিন এই দিনটিকে প্রতীকী হিসেবে পালন করা হল। এদিন উপস্থিত ছিলেন বৈকুন্ঠপুর বনবিভাগের আধিকারিকরা সহ ডিএফও সহ উত্তরবঙ্গের অ্যাডিশনাল পিসিসিএফ বি কে সুড ছাড়াও অন্যান্যরা।

এদিন তিনি বাঘাযতীন পার্কে নিজে হাতে বেশ কিছু গাছ লাগান। তিনি জানান, ন্যাশনাল ফরেস্ট পলিসির মধ্যে বলা হয়েছে ৩৩ শতাংশ বনাঞ্চল থাকতে হবে। কিন্তু এখানে মাত্র ১৯ শতাংশই বনাঞ্চল রয়েছে। তাই প্রতিবছর জনসাধারনকে গাছ লাগানোর বার্তা দেওয়া হয়। সেই সঙ্গে বন দফতরের পক্ষেও প্রতিবছর গাছ লাগানো হয়ে থাকে। এখনও পর্যন্ত ৫০০টি গাছ লাগানো হয়েছে বলে জানান তিনি। সেই সঙ্গে তিনি জনসাধানের কাছে আবেদন জানান, যেখানেই ফাঁকা জায়গা দেখবেন সেখানেই গাছ লাগান। তবে শুধু গাছ লাগালেই হবে না। সেই গাছের যথাযথ রক্ষনাবেক্ষন করারও আবেদন জানান তিনি।

Related Articles

Back to top button
Close