fbpx
কলকাতাহেডলাইন

রাজ্যের কোয়ারেন্টাইন সেন্টারগুলো মৃত্যুর আঁতুড়ঘর অভিযোগ বিজেপির

নিজস্ব প্রতিনিধি, কলকাতা: সবে রাজ্য বিজেপির নতুন রাজ্য কমিটি ঘোষিত হয়েছে। কিন্তু একুশের নির্বাচনকে পাখির চোখ করে এতটুকু সময় নষ্ট করতে রাজি নয় গেরুয়া শিবির। মঙ্গলবারই তৃণমূলের বিরুদ্ধে আক্রমণ জানালেন দলের দুই পুরনো সৈনিক হুগলির সাংসদ, সদ্য সাধারণ সম্পাদকের দায়িত্ব পাওয়া লকেট চট্টোপাধ্যায় ও আগে থেকেই সাধারণ সম্পাদকের পদে থাকা সায়ন্তন বসু। যদিও রাজ্য দফতরে এদিনের সাংবাদিক বৈঠকে মূলত দ্বিতীয় মোদি সরকারের সাফল্যের দিকে তুলে ধরাই ছিল মূল লক্ষ্য। যদিও তারই মধ্যে দুজনেই তৃণমূল কংগ্রেসকে বিঁধতে ছাড়েন নি।

সায়ন্তন যেমন পরিযায়ী শ্রমিকদের প্রতি রাজ্যের অবহেলার দিক তুলে ধরতে গিয়ে বলেন, ‘ সেদিন হাওড়ায় একটি কোয়ারেন্টাইন সেন্টারে গিয়েছিলাম। একটা ঘরে গাদাগাদি করে ৪৫ জনকে রাখা হয়েছে। কোন সামাজিক দূরত্ব বিধি নেই, কারও মুখে মাস্ক নেই। কোয়ারেন্টাইন সেন্টারগুলো মৃত্যুর আঁতুড়ঘর হয়ে উঠেছে।’ তিনি এদিন অভিযোগ করেন, ‘ কেন্দ্রের দুটি কল্যাণকর যোজনা ‘ আয়ুষ্মান’ যোজনা ও ‘ কৃষক সম্মান নিধি’ যোজনার লাভ থেকে রাজ্যের আপত্তিতে বঞ্চিত হচ্ছেন রাজ্যের মানুষ।’

আরও পড়ুন: ত্রাণেও দুর্নীতি,আদালতে যাওয়ার হুমকি দিলীপ ঘোষের

লকেট চট্টোপাধ্যায় অভিযোগ করেন, ‘ নারীরা পশ্চিমবঙ্গে সবচেয়ে অসুরক্ষিত। অথচ রাজ্যের মুখ্যমন্ত্রী একজন মহিলা। অন্যরাজ্যে মহিলা নির্যাতনের খবর পেলে দৌড়ে যান। অথচ নিজের রাজ্যে পরপর নারী নির্যাতনের ঘটনা ঘটলেও চুপ করে থাকেন।’ বৈঠকে সদ্য নির্বাচিত সহ-সভাপতি অর্জুন সিং, সম্পাদক সব্যসাচী দত্ত।

Related Articles

Back to top button
Close