fbpx
গুরুত্বপূর্ণপশ্চিমবঙ্গহেডলাইন

ভারতীয় জওয়ানদের মৃত্যুর প্রতিবাদে চিনা রাষ্ট্রপতির শ্রাদ্ধানুষ্ঠান বিজেপির

শান্তনু চট্টোপাধ্যায়, রায়গঞ্জ: শুক্রবার বেলা দেড়টা। রায়গঞ্জের ঘড়িমোড়ে রাস্তার উপর শ্রাদ্ধশান্তির তোড়জোড়,। যা দেখতে ভীড় জমালেন সাধারণ মানুষ। যদিও পরে জানা গেলো চিনের রাষ্ট্রপতি শি জিনপিং এর শ্রাদ্ধ শান্তির আয়োজন করেছে বিজেপি।

 

 

লাদাখ সীমান্তে চীনা সেনার হাতে কুড়ি জন ভারতীয় সেনার মৃত্যুর প্রতিবাদে মাথা ন্যাড়া করে শ্রাদ্ধশান্তির কাজ সারলেন দুই বিজেপি কর্মী। একই সঙ্গে পোড়ানো হলো চিন দেশের পতাকা ও চীনে তৈরী বিভিন্ন কোম্পানীর মোবাইল ফোন।

 

 

 

উল্লেখ্য শুক্রবার রায়গঞ্জ শহরের ঘড়িমোড়ে আয়োজিত হয় বিজেপির এই অভিনব প্রতিবাদ। পুরোহিত মন্ত্রোচ্চারণের মাধ্যমে হিন্দুধর্মের নিয়ম মেনে চীনা প্রেসিডেন্টের শ্রাদ্ধ করেন। কর্মসূচীতে মাথা ন্যাড়া করে শ্রাদ্ধে বসেন দুই বিজেপি কর্মী। এরপর চীনা পতাকার পাশাপাশি চিন দেশে তৈরী বিভিন্ন কোম্পানীর মোবাইল ভেঙে আগুন ধরিয়ে দেওয়া হয়।

 

 

 

দলের জেলা সভাপতি বিশ্বজিৎ লাহিড়ী বলেন,” চুক্তি ভেঙে চীন আগ্রাসন চালিয়ে কুড়ি জন ভারতীয় জওয়ানকে খুন করেছে। এর প্রতিবাদেই এই কর্মসূচী নিয়েছি আমরা। এখন থেকে সকল প্রকার চীনা দ্রব্য বয়কট করবো। সাধারন মানুষের কাছে আবেদন চীনা দখলদারী রুখতে জওয়ানখুনের বদলা নিতে চীনা দ্রব্য বয়কট করে স্বদেশী জিনিস ব্যবহার করুন। ” যদিও বিজেপির এই কর্মসূচীকে নাটক বলে কটাক্ষ করেছে তৃণমূল।

 

 

দলের নেতা অরিন্দম সরকার বলেন,” আসল প্রতিবাদ না করে লোকদেখানো নাটক করছে বিজেপি। জওয়ানদের হত্যার তীব্র নিন্দা করছি আমরাও। কিন্তু কেন্দ্রে তো বিজেপি সরকার রয়েছে। আমদানী-রপ্তানী বিষয়ে ব্যবস্থা তো তাদের নিতে হবে। এতজন জওয়ানের মৃত্যুর দায় কেন্দ্রীয় সরকার কোনভাবেই উপেক্ষা করতে পারেনা। তাস্বত্বেও এই পরিস্থিতিতে দেশের স্বার্থ আগে। সরকারের পাশে রয়েছি আমরা। কিন্তু দেখতে হবে জওয়ানদের বলিদান যেন বৃথা না যায়।দেশ ও জওয়ানদের পাশে রয়েছি আমরা।

Related Articles

Back to top button
Close