fbpx
পশ্চিমবঙ্গহেডলাইন

দলের দুই কর্মী ও পরিবারকে পুলিশি হেনস্থার প্রতিবাদে পুরুলিয়ায় অবস্থান বিক্ষোভ বিজেপির

সাথী প্রামানিক, পুরুলিয়া: দলের দুই কর্মীকে পুলিশি হেনস্থার অভিযোগ জানিয়ে পুরুলিয়ায় অবস্থান বিক্ষোভ করল বিজেপি। আজ বিকেলে পুরুলিয়া শহরের হাটের মোড়ে দলীয় এই কর্মসূচি করে ভারতীয় জনতা যুব মোর্চা পুরুলিয়া শহর মন্ডল কমিটি। পুরুলিয়া ২ ব্লকের পিড়রগড়িয়া গ্রামে  বিজেপির স্থানীয় মণ্ডল যুব সভাপতি দীনেশ নিয়োগী ও যুব কর্মী বিকাশ পরামানিককে পুলিশ হেনস্থার অভিযোগ জানিয়ে প্রতিবাদ করে ভারতীয় জনতা যুব মোর্চা।

‘দুয়ারে সরকার’ শিবিরে জমা পড়া আবেদন পত্র শিবিরে ফেলে রেখে চলে যাওয়ার ঘটনাকে সোশ্যাল সাইটে তুলে দেখানোর অভিযোগে ওই দুই বিজেপির যুব কর্মীর পরিবারকে হেনস্থার অভিযোগ উঠে পুলিশের বিরুদ্ধে। উল্লেখ্য, স্বাস্থ্যসাথী থেকে খাদ্যসাথী, রাজ্য সরকারের নানা প্রকল্প সাধারণ মানুষের কাছে পৌঁছে দিতে ‘দুয়ারে সরকার’ কর্মসূচি মধ্য দিয়ে গ্রামে গ্রামে শিবির করছে প্রশাসন। পুরুলিয়া-২  ব্লকের গোলামারা হাইস্কুলে এরকমই শিবিরের আয়োজন করে পুরুলিয়া ২  নম্বর ব্লক প্রশাসন। সেই শিবিরে গত বুধবার লম্বা লাইন দিয়ে নানা প্রকল্পের সুবিধা পেতে প্রচুর আবেদন পত্র জমা দেন এলাকার মানুষ।

অভিযোগ, জমা পড়া আবেদন পত্র না নিয়ে গিয়ে সেগুলি শিবিরে ফেলে যান সরকারি কর্মীরা। সেই চিত্র সোশ্যাল মিডিয়ায় তুলে ধরেন পুরুলিয়া ২ ব্লকের পীড়রগড়িয়ার দুই বিজেপি কর্মী। সেই অভিযোগে গভীর রাতে বিকাশের বাড়ি গিয়ে তাঁর পরিবারকে পুরুলিয়া মফস্বল থানার পুলিশ হেনস্থা করে বলে অভিযোগ। গোটা ঘটনার তীব্র প্রতিবাদ জানিয়েছে পুরুলিয়া জেলা বিজেপি। পুলিশের এই অন্যায়ের বিরুদ্ধে পুলিশ সুপারের কাছে অভিযোগ জানাবে বলেও জানিয়েছে তারা। এদিন দলের কর্মসূচিতে যোগ দিয়ে বিজেপি শহর মণ্ডল(উত্তর) সভাপতি সত্যজিৎ অধিকারী বলেন, “দলের দুই কর্মীকে বাড়িতে না পেয়ে বাড়িতে বার বার পুলিশ যায়। পরিবারের সদস্য দের থানাতে যাওয়ার জন্য বলে হেনস্থা করে। এর তীব্র প্রতিবাদ জানাচ্ছি আমরা।”

বিজেপির আনা এই অভিযোগ অস্বীকার করেছে পুরুলিয়া-২  ব্লকের বিডিও বিজয় গিরি। উল্টে তিনি বিজেপি কর্মীদের বিরুদ্ধে শিবিরে হামলা চালানোর অভিযোগ এনেছেন। বিষয়টি পুলিশকে জানানো হয়েছে বলেও জানিয়েছেন তিনি। এদিন গোটা ঘটনায় বিজেপিকে এক হাত নেন মন্ত্রী শান্তিরাম মাহাতো। তিনি বলেন, “রাজ্য সরকারের এই প্রকল্পকে ষড়যন্ত্র করে বদনাম করার চেষ্টা করছে বিজেপি। মানুষের কল্যাণ চায় না বিজেপি। সব কিছুতেই রাজনীতি করতে চায় ওরা। মানুষ এর জবাব দেবে।”

Related Articles

Back to top button
Close