fbpx
পশ্চিমবঙ্গহেডলাইন

ভাতারে ঘাস কাটতে গিয়ে তারে পা আটকে বিদ্যুৎস্পৃষ্ট হয়ে মৃত্যু বালকের

নিজস্ব সংবাদদাতা, ভাতার:  বাডির গবাদি পশুর জন্য মাঠে ঘাস কাটতে গিয়েছিল বছর এগারোর এক বালক। ধান জমির মাঝে আলে বসে আনমনে সে ঘাস কাটছিল। কিন্তু আলের উপরেই যে একটা বিদ্যুতের তার ছিঁড়ে পড়ে আছে সেটি তার নজরে পড়েনি। শেষে ওই বিদ্যুতের তারের সংস্পর্শে এসে বিদ্যুৎস্পৃষ্ট হয়ে মৃত্যু হয় ওই বালকের। মঙ্গলবার সকালে মর্মান্তিক এক ঘটনাটি ঘটেছে পূর্ব বর্ধমান জেলার ভাতার থানার কালুত্তক গ্রামে।  মৃত বালকের  নাম লখিরাম মুর্মু। খবর পেয়ে পুলিশ গিয়ে দেহটি উদ্ধার করে ময়নাতদন্তের জন্য বর্ধমান মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের মর্গে পাঠিয়েছে ।

জানা গেছে,কালুত্তক গ্রামের বাসিন্দা পেশায় জনমজুর  রবিন মুর্মু ও  নীল মুর্মুর একমাত্র সন্তান লখিরাম৷ রবিন মুর্মুরা জনমজুরির পাশাপাশি  গবাদি পশু প্রতিপালন করেন।  বাড়ির পোষ্যদের জন্য ঘাস কেটে আনার দায়িত্ব ছিল তাঁদের ছেলে  লখিরামের উপর। বাড়ির গবাদি পশুদের চাহিদা মিটিয়ে যে ঘাস উদবৃত্ত থাকত তা বিক্রি করে রবিনদের অভাবের সংসারে কিছুটা সাশ্রয় হত।

[আরও পড়ুন- বধূকে প্রাণে মেরে ঝুলিয়ে দেওয়ার অভিযোগে ধৃত স্বামী ও শ্বশুর]

স্থানীয় ও পরিবার সুত্রে জানা গেছে, এদিন সকালে বাবা-মা কাজে চলে গেলে অনান্য দিনের মত যথারীতি একটা বস্তা আর একটা কাস্তে হাতে মাঠে ঘাস কাটতে বেরিয়ে যায় লখিরাম। লখিরামের সঙ্গে তার সমবয়স্ক পাড়ার দু’একজন সঙ্গীও ছিল।  মাঠের জমিতে এখন ধান থাকায়  ধানজমির মাঝে আলে বসে ঘাস কাটছিল লখিরাম।  তার কয়েকটা জমির পর  ঘাস কাটছিল লখিরামের সঙ্গীরা। এদিকে লখিরাম যে আলে বসে ঘাস কাটাছিল ওই আলের উপর বিদ্যুতের একটা তার ছিঁড়ে পড়েছিল। কিন্তু এগারো বছরের ওই শিশুর সেটি নজরে পড়েনি। ফলে আনমনে ঘাস কাটতে কাটতে ওই তারের সংস্পর্শে চলে এলে বিদ্যুৎস্পৃষ্ট হয় ওই শিশুটি। ঘটনাস্থলেই তার মৃত্যু হয়৷

জানা গেছে, এদিকে লখিরামের সঙ্গী সাথীদের ঘাস কাটা হয়ে গেলে যে যার বাড়ি ফিরে যায়। তারা লখিরামকে খেয়াল করেনি।  পরে দুপুর নাগাদ লখিরামের বাবা-মা কাজ থেকে বাড়ি ফিরে আসার পর তার সন্ধানে খোজখবর শুরু হয়। এরপর খুঁজতে খুঁজতে তাঁরা মাঠে ধান জমির আলের উপর  লখিরামের নিথর দেহটি দেখতে পায়। পরে স্থানীয়দের কাছ থেকে খবর পেয়ে মাঠ থেকে ওই বালকের দেহটি উদ্ধার করে নিয়ে এসে ময়নাতদন্তের জন্য পাঠায় ভাতার থানার পুলিশ। উৎসবের আবহে মর্মান্তিক এই ঘটনায় এলাকায় শোকের ছায়া নেমে এসেছে।

 

Related Articles

Back to top button
Close