fbpx
গুরুত্বপূর্ণদেশহেডলাইন

আনলক পর্ব শুরু হতেই ফের দূষণের কবলে রাজধানী

যুগশঙ্খ ডিজিটাল ডেস্ক: করোনা আবহের মধ্যেই দিল্লিতে নতুন করে দূষণের পরিমাণ বাড়ছে। আর এতেই চরম সমস্যায় পড়েছেন সাধারণ মানুষ। ধোঁয়াশার চাদরে মুখ ঢেকেছে রাজধানীর। দিল্লির গাজিপুর থেকে অক্ষরধাম, লোধি রোড থেকে আর কে পুরম, ইন্ডিয়া গেট চত্ত্বর জুড়ে দূষণের মাত্রা বেড়েছে। আর এতেই রাজধানীজুড়ে আতঙ্কের পরিবেশ তৈরি হয়েছে। দিল্লিবাসী জানিয়েছেন যে, “খানিকটা দৌড়লেই অথবা সাইকেল চালালেই শ্বাসকষ্ট অনুভব করছেন তাঁরা।” কয়েকজন প্রাতঃভ্রমণকারী জানিয়েছেন যে, “বাতাসে দূষণের মাত্রা যে বেড়েছে তা আমরা ভালোই বুঝতে পেরেছি।”

[আরও পড়ুন- ফের দুর্যোগের পূর্বাভাস ঘিরে আতঙ্কে হায়দরাবাদ, জারি কমলা সতর্কতা]

কেন্দ্রীয় দূষণ নিয়ন্ত্রণ পর্ষদ জানিয়েছে যে, সোমবার সকালে আইটিও-তে বাতাসে পিএম ২.৫-এর মাত্রা ছিল ২৪১, লোধি রোডে ১৫১ এবং আর কে পুরমে ছিল ২৪৯। করোনা লকডাউনের সময় দিল্লিতে রাস্তায় গাড়ির সংখ্যা এতটাই কমে গিয়েছিল যে, সেখানে দূষণের মাত্রা একেবারেই নিশ্চিহ্ন হয়ে গিয়েছিল। এরপর আনলক শুরু হতেই রাজধানীর রাস্তায় একের পর এক গাড়ি চলতে শুরু করে। আর এতেই বেড়ে জায় দূষণের হার। এইভাবে ক্রমশই দূষণের হার বেড়ে যাওয়ায় এবার দিল্লিবাসীর শ্বাসকষ্ঠ শুরু হয়েছে।

এরআগে দিল্লি, মুম্বইতে অতিমাত্রায় দূষণই করোনার জন্য দায়ী বলে মত দিয়েছিল বিশেষজ্ঞরা। ভারতে সবচেয়ে বেশি করোনা সংক্রমণ হয়েছে দিল্লি ও মুম্বইতে। বিশেষজ্ঞদের মতে, ওই দুই শহরে বায়ুদূষণ মারাত্মক বেশি। আর সেইকারনেই করোনার কবলে বেশি পড়েছে দিল্লি আর মুম্বই।

 

 

Related Articles

Back to top button
Close