fbpx
আন্তর্জাতিকহেডলাইন

বিস্ফোরণে কেঁপে উঠল রাজধানী কাবুল, এবার জঙ্গিদের নিশানায় দেশের ভাইস প্রেসিডেন্ট

যুগশঙ্খ ডিজিটাল ডেস্ক:  ফের ভয়াবহ বোমা বিস্ফোরণে কেঁপে উঠল আফগানিস্তানের রাজধানী কাবুল। বুধবার ভোর নাগাদ আফগান উপরাষ্ট্রপতি রাষ্ট্রপতি আমরুল্লাহ সালেহ কনভয়ে হামলা চালানো হয় বলে জানা যাচ্ছে। তবে বরাত জোরে আফগান প্রেসিডেন্ট রক্ষা পেলেও এখনও পর্যন্ত এই মর্মান্তিক জঙ্গি হানায় ১০ জনের মৃত্যুর খবর পাওয়া যাচ্ছে। পাশাপাশি ১২ জনের বেশি মানুষ আহত হয়েছেন বলে জানা যাচ্ছে।

ফেসবুকে দেওয়া পোস্টে ভাইস প্রেসিডেন্ট আমরুল্লাহ সালেহের দফতরের মুখপাত্র রাজওয়ান মুরাদ বলেন, “আবারও আফগানিস্তানের শত্রুরা সালেহের ক্ষতি করার চেষ্টা করেছিল। কিন্তু তারা তাদের অসত্‍ লক্ষ্য অর্জনে ব্যর্থ হয়েছে। হামলায় সালেহের কোনো ক্ষতি হয়নি এবং তিনি ঘটনাস্থল ত্যাগ করেছেন।” সালেহর কনভয় লক্ষ্য করে হামলা চালান হয়েছিল। রাজধানী কাবুলের তাইমানি এলাকায় রাস্তার পাশে পুঁতে রাখা বোমায় বিস্ফোরণ ঘটানো হয়। আইইডি বিস্ফোরণের তীব্রতা এতটাই ছিল যে এর ফলে সংলগ্ন একটি দোকানে থাকা গ্যাস সিলিন্ডার ব্লাস্ট করে।

তালিবানদের সমালোচক হিসাবে পরিচিত সালেহ এই হামলার পর একটি ভিডিও মেসেজ দেন। যাতে তিনি দাবি করেন সন্ত্রাসবাদের বিরুদ্ধে তার এই অভিযান চলবে। আফগানিস্তানের দুই ভাইস প্রেসিডেন্টের মধ্যে অন্যতম সালেহ। এর আগেও বহুবার জঙ্গিরা নিশানা করেছেন এই আফগানি নেতাকে। এরমধ্যে গত বছরি তাঁর দফতরে হামলা চালান হয়েছিল। যাতে প্রাণ যায় ২০ জনের। কাতারের রাজধানী দোহায় আফগানিস্তান সরকার ও তালেবানের মধ্যে বহু প্রতীক্ষিত শান্তি আলোচনা শুরু হওয়ার ঠিক আগে এই হামলার ঘটনা ঘটল।

আরও পড়ুন: নোবেল শান্তি পুরস্কারের জন্য বিবেচিত হলেন মার্কিন প্রসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প

অন্যদিকে এই মর্মান্তিক হামলার জেরে সালেহ-র বেশ কিছু দেহরক্ষী গুরুতর ভাবে জখম হয়েছেন বলে জানা যাচ্ছে। বিস্ফোরণের তীব্রতায় নিকটবর্তী বেশ কিছু দোকানপাট কার্যত ভেঙে গুড়িয়ে যায়। যদিও এখনও পর্যন্ত কোনও জঙ্গি গোষ্ঠী বা সংগঠন এই ঘটনার দায় স্বীকার করেনি বলেই জানা যাচ্ছে। উল্লেখযোগ্য ভাবে সরকারের তরফে নির্দিষ্ট কোনও সংগঠনের দিকে এই প্রসঙ্গে আঙুল তোলা হয়নি। যদিও এই গোটা নাশকতার পিছনে তালিবানদের হাত আছে বলে মনে করছে আন্তর্জাতিক বিশেষজ্ঞ মহল।

Related Articles

Back to top button
Close