fbpx
কলকাতাগুরুত্বপূর্ণহেডলাইন

বিদ্যুতের ব্যর্থতার দায় রাজ্যের নয় সিইএসসির , সাফ জানালেন ফিরহাদ

যুগশঙ্খ ডিজিটাল ডেস্ক: শহরের মানুষের দুর্গতির জন্য সিইএসসি’কেই দায়ি করলেন কলকাতা পুরসভার মুখ্যপ্রশাসক ফিরহাদ হাকিম। রবিবার পুরসভায় এক সাংবাদিক সম্মেলনে ফিরহাদ অভিযোগ করে বলেন, ‘সিইএসসি’র জন্য মানুষের অসুবিধা হয়েছে। সিইএসসি বলেছিল, গাছ কাটার জন্য লাইট আসেনি, তা ঠিক নয়। বিভিন্ন জায়গায় লাইভ কেবল ছিল। সিইএসসি লাইন অফ না হলে মারা যেতেন কর্মীরা। তাই কাজ করা যায়নি।’

ফিরহাদ বলেন, ‘সিইএসসি’র সমস্যা কর্মী কম। তাই করতে পারছে না তাড়াতাড়ি। কিন্তু সেটা ওঁদের সমস্যা। সেটা কর্পোরেশন বা রাজ্য সরকারের দায়িত্ব নয়। এটা ওঁদের সমস্যা। তিনি আরও বললেন, এই ব্যর্থতার দায় সরকারের নয়। সিইএসসির জন্য মানুষের অসুবিধা হয়েছে। তারা এই অসুবিধার কথা আমাকে জানায়নি। ওদের কর্মী ছিল। ভাল কথা। থাকতেই পারে। কিন্তু সেটা না জানালে বুঝব কী করে? ফিরহাদের দাবি, সিইএসসি তো সরকারি নয়, তাহলে রাজ্য কেন দায় নেব?

আরও পড়ুন: খলিল কেন ,ব্যর্থতার দায়ে ববিকে কেন সরানো হল না প্রশ্ন দিলীপের

ফিরহাদ অবশ্য জানিয়েছেন, সোমবারের মধ্যে পরিস্থিতি অনেকটাই স্বাভাবিক হয়ে যাবে। মোটামুটি শহরের বড় রাস্তার উপর থেকে সব গাছ সরানো হয়েছে। কাল থেকে আরও ৩৫০ লোক গাছ কাটার জন্য নিয়োগ করা হবে। তিনি অবশ্য স্বীকার করে নিয়েছেন মানুষের অসুবিধা হয়েছে। কিন্তু রাজ্য সরকার ও কলকাতা পুরসভা শেষ পর্যন্ত চেষ্টা করে যাচ্ছে সমস্যা সমাধানের জন্য। ফিরহাদ জানিয়েছেন, এখন মারপিট করার সময় নয়। এটা একটা বিপর্যয়ের সময়। এটা কারও দোষের নয়, রাজনীতি করার সময় নয়। সকলকে একযোগে কাজ করতে হবে। সেই কারণেই রবিবারও মুখ্যসচিব সিইএসসি’র সঙ্গে কথা বলেছেন যাতে পরিস্থিতি স্বাভাবিক হয়ে যায়।

আগামিকাল ইদ সত্ত্বেও কলকাতা পুরসভার সব কর্মী কাজে আসবেন, আসবেন খোদ মুখ্যপ্রশাসক জানিয়েছেন তিনি নিজেই। কারণ, কালকের মধ্যেই পরিস্থিতি মোটের ওপর স্বাভাবিক করা হবে বলেই জানিয়েছেন ফিরহাদ। রবিবারও সিইএসসি কর্তৃপক্ষের সঙ্গে তিনি বৈঠক করেছেন বলেই জানিয়েছেন তিনি। সেখানে সিইএসসি সোমবারের মধ্যে কলকাতা স্বাভাবিক করবে বলেই কথা দিয়েছে। আশা করা যায় সিইএসসি তার কথা রাখবে, জানিয়েছেন কলকাতার মুখ্য প্রশাসক।

Related Articles

Back to top button
Close