fbpx
পশ্চিমবঙ্গহেডলাইন

পুজো নিয়ে হাইকোর্টের রায়কে স্বাগত জানাল কংগ্রেস

অভিষেক গঙ্গোপাধ্যায়, কলকাতা: করোনা আবহে দুর্গাপুজোয় প্যাণ্ডেলে জনগনের অবাধ প্রবেশে নিষেধাজ্ঞা জারি করেছে মহামান্য উচ্চ আদালত। এবার সেই রায়কে স্বাগত জানাল প্রদেশ কংগ্রেস। সোমবার প্রদেশ কংগ্রেসের পক্ষ থেকে সাধারণ সম্পাদক রোহন মিত্র বলেন, ‘আসন্ন শারদোৎসবে আমাদের রাজ্যের পুজা প্যান্ডেলগুলিতে দর্শনার্থীদের প্রবেশের ওপর নিষেধাজ্ঞা বলবৎ করে মহামান্য কলকাতা হাইকোর্ট আজ যে ঐতিহাসিক রায় দান করেছেন, তাকে আমি সর্বান্তকরণে স্বাগত জানাই।’ তবে সূত্রের খবর, আদালতের এই রায়কে তৃণমূল চ্যালেঞ্জ জনিয়ে উচ্চতর বেঞ্চে আপিল করবে।

দুর্গা পুজো তরজায় জমজমাট রাজ্য রাজনীতি। শাসক ও বিরোধীর মধ্যে মতান্তর রয়েছে প্রথম থেকেই। তাই স্বতঃপ্রণোদিত মামলাও রুজু করা হয়। করোনার সংক্রমণের জুজু এখনও কাটেনি রাজ্যবাসির মাথার ওপর থেকে। তার মধ্যেই এবারে অনুষ্ঠিত হতে চলেছে দুর্গা পুজো। যেখানে শারীরিক দূরত্ব বজায় রাখার কথা বারে বারে বলা হচ্ছে। এমন পরিস্থিতিতে সবার জন্য পুজো মণ্ডপে প্রবেশধিকার দিলে, মন্ডপগুলি করোনা সংক্রমণের আঁতুড় ঘর হয়ে উঠবে। এমনটাই মত চিকিৎসক থেকে বিশেষজ্ঞ ও রাজনৈতিক মহলের। অন্যদিকে শাসক দল তৃণমূলের পক্ষ থেকে ঐতিহ্যের দুর্গাপুজো নিয়ে শিথিল মনোভাব নিয়ে বারে বারে প্রশ্ন তুলেছেন বিরোধীরা। তাই তারা বাধ্য হয়ে আদালতের দারস্থ হন। যদিও এই ভূমিকায় অগ্রনি ভুমিকা গ্রহণ করে বিজেপি।

এদিন প্রদেশ কংগ্রেস সাধারণ সম্পাদক বলেন, ‘দুর্গোৎসব আমাদের চিরকালের ঐতিহ্য এবং কৃষ্টি, যা বিলীন হবার নয়; কিন্তু মানব সভ্যতার স্বার্থে করোনার বিরুদ্ধে লড়াই চালিয়ে এই অতিমারীকে আজ আমাদের বিলুপ্ত করতেই হবে। এই ব্যাপারে আগে থেকেই ইতিবাচক পদক্ষেপ নিয়ে এগিয়ে আসা কোলকাতার সন্তোষ মিত্র স্কোয়ার পূজা কমিটিকেও আমি তাঁদের সময়োচিত সিদ্ধান্তের জন্য এই উপলক্ষে অভিনন্দন ও কুর্নিশ জানাই।’

সূত্রের খবর আদালতের এই রায়কে সিধে চোখে নেয় নি শাসক গোষ্ঠী। তারা এই রায়কে চ্যালেঞ্জ জানাতে পারে। ইতিমধ্যেই এ বিশয়ে আলোচনা শুরু হয়ে গিয়েছে। অন্য দিকে আদালতের এই রায়তে ধাক্কা খেয়েছে তৃণমূলের একুশের নির্বাচনের পরিকল্পনা। এমনটাই মত রাজনৈতিক বিশেষজ্ঞদের। কারণ ক্লাব গুলিকে হাতিয়ার করে ভোট ব্যাঙ্ক বাড়তে চেয়েছিল তৃণমূল। সেই আশায় জল ঢেলে দিল আদালত।

Related Articles

Back to top button
Close