fbpx
পশ্চিমবঙ্গহেডলাইন

মৃত ব‍্যক্তিকে নিজেদের কর্মী বলে দাবি সিপিএম ও বিজেপির, শুরু রাজনৈতিক চাপানউতর

মিলন পণ্ডা, পূর্ব মেদিনীপুর: খেজুরিতে এক এক ব্যক্তির মৃতদেহ উদ্ধারকে কেন্দ্র করে রাজনৈতিক চাপানউতর তৈরি হয়েছে। সিপিএম ও বিজেপি নিজেদের কর্মী বলে দাবি করেছে। পুলিশ জানিয়েছে মৃত ব্যাক্তি দেবকুমার ভূঞ্জ্যা (৫০)। তার বাড়ি খেজুরি থানার বারাতলা গ্রামে। এই মৃতদেহ উদ্ধারকে কেন্দ্রে করে রাজনৈতিক উওেজনা ছড়িয়েছে।

জানা গিয়েছে, রবিবার সাত সকালে বাড়ি থেকে কিছুটা দূরে প্রাথমিক বিদ্যালয়ের সামনে ব্যাক্তির মৃতদেহ উদ্ধার হয়। পুলিশ মৃতদেহটি উদ্ধার করে কাঁথি মহকুমা হাসপাতালে ময়নাতদন্তের জন্য পাঠিয়েছে। এই মৃতদেহ উদ্ধারকে কেন্দ্র করে রাজনৈতিক চাপানউতর তৈরি হয়েছে। এই মৃতদেহটি সিপিএম ও বিজেপি নিজেদের কর্মী বলে দাবি করে।

এলাকার বিজেপি নেতা তাপস দোলাই বলেন, শনিবার রাতে তৃণমূল আশ্রিত দুষ্কৃতীরা আমাদের কর্মীদের দেবকুমারকে বাড়ি থেকে তুলে নিয়ে গিয়ে মারধর করে ফেলে দিয়ে যায়। আমফান ঝড়ের স্বজনপোষণ কারণে প্রকৃত ক্ষতিগ্রস্তদের তালিকা নিয়ে বিডিওর কাছে ফর্ম জমা দিয়েছিল ওই বিজেপি কর্মী দেবকুমার। আর সেই কারণে এই বিজেপি কর্মীকে জোর করে তুলে নিয়ে গিয়ে পিটিয়ে মারধর করে ফেলে দিয়ে যায় তৃণমূল আশ্রিত দুষ্কৃতীরা।

সিপিএম নেতা ঝাড়েশ্বর বেরা বলেন, দীর্ঘদিন ধরে আমাদের কর্মী ছিল দেবকুমার। তৃণমূলে অত্যাচারের কারণে দীর্ঘদিন ধরে বাড়ি ছাড়া ছিল এবং লোকসভা নির্বাচনের পর বাড়িতে ঢুকে ছিল দেবকুমার। এরপর কাজকর্ম করার অপরাধে তুলে নিয়ে গিয়ে তৃণমূল আশ্রিত দুষ্কৃতীদের খুন করে বাড়ি থেকে কিছুটা দুরে ফেলে দিয়ে যায়।

খেজুরি থানা এক পুলিশ আধিকারিক বলেন, মৃতদেহটি উদ্ধার করে কাঁথি মহাকুমা হাসপাতালে ময়না তদন্তে পাঠানো হয়েছে। ময়নাতদন্তের রিপোর্টে মৃত্যুর প্রকৃত কারণ পরিস্কার হবে। যদিও পরিবারের পক্ষ থেকে লিখিত অভিযোগ দায়ের হয়নি। অস্বাভাবিক মৃত্যুর মামলা রুজু করে ঘটনার তদন্ত শুরু করা হয়েছে। যদিও তৃণমূলও তরফ থেকে কোনো প্রতিক্রিয়া জানা যায়নি।

Related Articles

Back to top button
Close