fbpx
কলকাতাগুরুত্বপূর্ণহেডলাইন

মুখ্যমন্ত্রী কথা দিক কেউ কাটমানি নেবে না, কেন্দ্রের কাছে আরও বেশি অর্থ বরাদ্দের দাবি সিপিএমের

নিজস্ব প্রতিনিধি, কলকাতা: আমফান বিপর্যয় পরিস্থিতিতে রাজ্য সরকারের পাশে দাঁড়িয়ে আরও বেশি অর্থ বরাদ্দের দাবি জানালো সিপিএম। ফের দাবি তুলল জাতীয় বিপর্যয় ঘোষণা করার। পাশাপাশি, প্রধানমন্ত্রীর বরাদ্দকৃত অর্থ থেকে শাসক দল যে কোনও কাটমানি নেবে না সে বিষয়ে মুখ্যমন্ত্রীকে কথা দিতে হবে বলেও দাবি তোলে তারা।

ঘূর্ণিঝড় আমফানে বিধ্বস্ত বাংলার পরিস্থিতি ঘুরে দেখে শুক্রবার এক হাজার কোটি টাকা বরাদ্দ করেছেন প্রধানমন্ত্রী। তার পরিপ্রেক্ষিতে এদিন এক বিবৃতিতে সিপিএম পলিটব্যুরো সদস্য মহম্মদ সেলিম বলেন, ‘দেরিতে হলেও প্রধানমন্ত্রীর মনে হয়েছে। তাঁকে স্বগত। এটা তাঁর কর্তব্যের মধ্যে পড়ে। তিনি সবটা ঘুরে দেখে নিশ্চয়ই বুঝতে পেরেছেন লক্ষাধিক মানুষ ক্ষতিগ্রস্ত। তার পরেও উনি এক হাজার কোটি টাকা বরাদ্দ করেছেন। যা ক্ষতি হয়েছে তাতে এক হাজার কোটি টাকায় কি হবে? আরও বেশি বরাদ্দ করতে হবে। জাতীয় বিপর্যয় ঘোষণা করতে হবে।’

করোনা পরিস্থিতিতে একদিকে গোটা দেশের মতন এরাজ্যের মানুষ গৃহবন্দি। অন্যদিকে ঘূর্ণিঝড়ে লক্ষ লক্ষ মানুষ গৃহহীন হয়ে পড়েছে। এই পরিস্থিতিতে কেন্দ্রীয় সরকারকে তার চালু কিছু প্রকল্পকে বিশেষভাবে ব্যবহার করার দাবি তুলে সেলিম বলেন, ‘করোনা পরিস্থিতিতে একদিকে গোটা দেশের মতন এরাজ্যের মানুষ গৃহবন্দি। অন্যদিকে ঘূর্ণিঝড়ে লক্ষ লক্ষ মানুষ গৃহহীন হয়ে পড়েছে। এই পরিস্থিতিতে প্রধানমন্ত্রীর কাছে আমাদের আবেদন আবাস যোজনার ঘর দিন ওই সমস্ত গৃহহীন মানুষকে। করোনা পরিস্থিতিতে একদিকে গোটা দেশের মতন এরাজ্যের মানুষ গৃহবন্দি। অন্যদিকে ঘূর্ণিঝড়ে লক্ষ লক্ষ মানুষ গৃহহীন হয়ে পড়েছে। লকডাউনের জেরে এমনিতেই অসংখ্য মানুষ কাজ হারিয়ে রাজ্যে ফিরেছেন। তাদের হাতে অর্থ নেই, সড়ক যোজনা, আবাস যোজনার কাজ দিন তাদের। একশ দিনের কাজ দিন। তাতে এক সঙ্গে দুই কাজ হবে।’

এ প্রসঙ্গেই রাজ্যের শাসক দলকে কাটমানির খোঁচা দিয়ে তিনি বলেন, ‘মুখ্যমন্ত্রীকে ঘোষণা করতে হবে গরীব, অসহায়, দুর্দশাগ্রস্ত মানুষের জন্য বরাদ্দকৃত অর্থ থেকে আমরা কোনও কাটমানি নেবো না।’

Related Articles

Back to top button
Close