fbpx
পশ্চিমবঙ্গহেডলাইন

টিটাগড় রেল স্টেশন চত্ত্বরে দেওয়াল ধসে শিশুর মৃত্যু, উত্তেজনা

অলোক কুমার ঘোষ, ব্যারাকপুর: উত্তর ২৪ পরগনার টিটাগড়ে দেওয়াল ধসে তার নিচে চাপা পড়ে মৃত্যু হল আড়াই বছরের এক শিশুর। ওই শিশুর নাম আরিয়ান দাস। শুক্রবার সকালে আকস্মিক এই ঘটনা ঘটে টিটাগড় রেল স্টেশনের ৪ নম্বর প্লাটফর্ম সংলগ্ন এলাকায়। এই ঘটনায় চাঞ্চল্যের সৃষ্টি হয়েছে টিটাগড় রেল স্টেশন সংলগ্ন পুরনো রেল বস্তি এলাকার বাসিন্দাদের মধ্যে।

স্থানীয় সূত্রে জানা গেছে, আড়াই বছরের শিশু আরিয়ান দাস টিটাগড় রেল স্টেশনের ৪ নম্বর প্লাটফর্ম সংলগ্ন এলাকায় বিপজ্জনক একটি পাঁচিলের ধারে অন্য বাচ্চাদের সঙ্গে খেলছিল।

সেই সময় টিটাগড় রেল স্টেশন চত্ত্বরের পুরনো একটি পাঁচিল আচমকাই ধসে পড়ে। ওই পাঁচিলের তলায় ৪ জন বাচ্চা চাপা পড়ে যায়। চিৎকার চেঁচামেচি শুরু করে দেয় প্রত্যক্ষদর্শীরা।

আরও পড়ুন:কালীঘাট ও চিংড়িহাটা সেতু সারাইয়ে মাস্টার প্ল্যান তৈরি করতে চায় পুর ও নগরোন্নয়ন দফতর

স্থানীয় বাসিন্দারা দ্রুত এসে পাঁচিলের ইঁট সরিয়ে ৪ জনকেই উদ্ধার করে ব্যারাকপুর বিএন বসু মহকুমা হাসপাতালে নিয়ে যায়। পথেই আড়াই বছরের শিশু আরিয়ান দাসের মৃত্যু হয়। এই ঘটনায় জখম আরও তিন শিশুর নাম জানা গেছে পবন দাস, সমীর মিশ্র এবং অনামিকা দাস। ব্যারাকপুর বি এন বসু মহকুমা হাসপাতালে তাদের প্রাথমিক চিকিৎসার পর ছেড়ে দেওয়া হয়েছে। এদিকে এই ঘটনার পর টিটাগড় রেল স্টেশনের এক আধিকারিক দরিদ্র জখম ওই শিশুদের চিকিৎসা করানোর জন্য তাদের অভিভাবকদের হতে আর্থিক সহায়তা প্রদান করেন। এই ঘটনায় উত্তেজনা এড়াতে টিটাগড় থানার পুলিশ ঘটনাস্থলে পৌঁছায়।

রেল প্রশাসন সূত্রে জানা গেছে, পুরনো একটি পাঁচিল দীর্ঘদিন বিপজ্জনক অবস্থায় প্ল্যাটফর্মের ৪ নম্বরের দিকে ছিল। সেটি কোনও কারণে শুক্রবার সকালে ভেঙে পড়ে এই দুর্ঘটনা ঘটেছে। মৃত শিশুর দেহ ময়নাতদন্তে পাঠিয়েছে রেল পুলিশ। রেল পুলিশ এই ঘটনার তদন্ত শুরু করেছে। এই ঘটনায় ক্ষুব্ধ এলাকার বাসিন্দারা রেল প্রশাসনের কাছে মৃত শিশুর পরিবারের জন্য আর্থিক ক্ষতিপূরণ দাবি করেছে।

Related Articles

Back to top button
Close