fbpx
গুরুত্বপূর্ণদেশহেডলাইন

পরিযায়ী শ্রমিকদের থেকে রেলের ভাড়া নেওয়ার সিদ্ধান্ত অযৌক্তিক… কেন্দ্রকে কটাক্ষ সোনিয়ার

যুগশঙ্খ ডিজিটাল ডেস্ক: লকডাউনে বিপর্যস্ত পরিযায়ী শ্রমিকদের জীবন। রোজগারের আশায় তারা একদিন বাড়ি ছেড়ে পাড়ি দিয়েছিলেন রাজ্যের বাইরে। আজ সেখানেই ঘরবন্দি তারা। অর্থাভাবে অনাহারে দিন কাটছে তাদের। অনেকেই স্ত্রী, ছেলে মেয়েকে নিয়ে ভিন দেশে মাথা গুঁজে দিন কাটাচ্ছিলেন। এখন আর সেই আশ্রয়টুকুও শেষ। কাজ নেই। শেষ সম্বলটুকুও প্রায় শেষের পথে।

এই অবস্থায় তারা যাতে বাড়ি ফিরতে পারে ইতিমধ্যেই ট্রেনের ব্যবস্থা করেছে রেল। কিন্তু ট্রেনে চেপে আসতেও গেলেও লাগবে টাকা। এই দুর্দিনে কোথা থেকে পাবে সেই টাকা!

এই অবস্থায় পরিযায়ী শ্রমিকদের পাশে দাঁড়ানোর কথা ঘোষণা করলেন কংগ্রেস সভানেত্রী সোনিয়া গান্ধী শ্রমিকদের ঘরে ফেরাতে কংগ্রেস টাকা দেবে বলে ঘোষণা করেছেন তিনি। পাশাপাশি বিশেষ ট্রেনের যাত্রীদের থেকে ভাড়া নেওয়ার সিদ্ধান্ত নিয়ে কেন্দ্রীয় সরকারকেও কটাক্ষ করতে ছাড়েননি তিনি।

সোমবার এক বিবৃতিতে সোনিয়া গান্ধী কেন্দ্রের বিরুদ্ধে ক্ষোভ উগরে দিয়ে বলেন, ‘বিদেশের মাটিতে আটকে পড়া ভারতীয়দের বিনা পয়সায় বিমানে চড়িয়ে দেশে আনার ক্ষেত্রে সরকার তার দায়িত্ববোধ খুঁজে পায়। গুজরাতে একটি প্রকাশ্য কর্মসূচিতে পরিবহণ ও খাবারের জন্য ১০০ কোটি টাকা খরচ করতে পারে সরকার। প্রধানমন্ত্রীর করোনা ফান্ডে ১৫১ কোটি টাকা দেওয়ার মতো উদারতা দেখাতে পারে রেলমন্ত্রক।” অথচ এমন চরম দুর্দশার সময়ে শ্রমিকদের কেন ট্রেন ভাড়া দিতে হবে?

সোনিয়ার গান্ধী বলেন, লকডাউনের জন্য চার ঘণ্টার নোটিশ পর্যন্ত পরিযায়ী শ্রমিকরা পায়নি। আর তার জেরে এই দুর্দশার মুখে পড়তে হয়েছে তাদের।
সোনিয়ার কথায়, যানবাহন ছাড়াই বহু পরিযায়ী শ্রমিক শত শত কিলোমিটার হাঁটতে বাধ্য হচ্ছেন তারা। আজও দেশের বহু অংশে এখনও পর্যন্ত লক্ষ লক্ষ পরিযায়ী শ্রমিক দুর্দশার মধ্যে দিন কাটাচ্ছেন।

এমন সঙ্কটের মুহূর্তে ওই সব শ্রমিকদের বাড়ি ফেরাতে কেন্দ্রীয় সরকার ও রেলমন্ত্রকের ভাড়া নেওয়ার সিদ্ধান্ত মেনে নেওয়া যায় না।  এর পরই সোনিয়ার গান্ধীর ঘোষণা, দরিদ্র পরিযায়ী শ্রমিকদের তাঁদের রেল ভাড়ার খরচ বহন করবে প্রদেশ কংগ্রেস কমিটি। এ জন্য প্রত্যেক রাজ্যের প্রদেশ কংগ্রেসকে প্রয়োজনীয় পদক্ষেপ করার জন্য নির্দেশও দিয়েছেন তিনি।

পরিযায়ী শ্রমিকদের ঘরে ফেরাতে ‘শ্রমিক স্পেশাল’ ট্রেন চালানোর ঘোষণা আগেই করেছিল রেল। কিন্তু সে জন্য শ্রমিকদের ভাড়া মেটাতে বলা হয়েছিল। সেই টাকা রেলমন্ত্রক রাজ্যের থেকে নেবে বলেও জানিয়ে দিয়েছিল তারা। এই বিজ্ঞপ্তি ঘিরে নতুন করে বিতর্ক দানা বাঁধতে শুরু করে।

Related Articles

Back to top button
Close