fbpx
পশ্চিমবঙ্গহেডলাইন

কোয়ারেন্টাইন সেন্টারে থাকা মানুষদের অবসাদ দূর করতে কাউন্সেলিং এর ব্যবস্থা করবে স্বাস্থ্য দফতর

শান্তনু চট্টোপাধ্যায়, রায়গঞ্জ: কোয়ারেন্টাইন সেন্টারে থাকা করোনা উপসর্গহীন মানুষদের মনোরঞ্জনের জন্য এবারে টিভির বন্দোবস্ত করতে চলেছে স্বাস্থ্য দফতর। শুক্রবার রায়গঞ্জের কর্নজোড়ায় অবস্থিত বিবেকানন্দ সভাগৃহে প্রশাসনিক বৈঠকে সাংবাদিকদের মুখোমুখি হয়ে একথা জানালেন কোভিড ১৯-এর উত্তরবঙ্গের দ্বায়িত্ব প্রাপ্ত অফিসার ইনচার্জ সুশান্ত রায়। সুশান্ত বাবু বলেন,” আমরা লক্ষ করেছি কোয়ারেন্টাইন সেন্টারে থাকা মানুষেরা হয় লুডো,গল্পগুজব করছে নয়তো মানসিক অবসাদে মারামারি করছে। তাদের এই অবসাদ কাটানোর জন্য ওয়ার্ডে টিভির ব্যবস্থা করা হবে। পাশাপাশি তাদের কাউন্সেলিং এর ব্যবস্থা করবে রাজ্য সরকার।

সুশান্ত বাবু আরো বলেন,” উত্তর বঙ্গে গোষ্ঠী সংক্রমণের কোনো খবর নেই। করোনার প্রভাব আগের থেকে কমেছে। এখানে এ্যাসিমটোমেটিক কেসের সংখ্যা প্রায় বিরানব্বই শতাংশ। তাই অযথা আতংকিত হবেন না। আই সি এম আর -এর নির্দেশ মোতাবেক আমরা এ্যাসিমটোমেটিক কেসে লালারস পরীক্ষা বন্ধ করে দিচ্ছি। ” সাংবাদিকদের করা অন্য একটি প্রশ্নের উত্তরে সুশান্ত বাবু বলেন,” স্বাস্থ্যকর্মী, চিকিৎসক, পুলিশ, প্রশাসনিক কর্তাদের মতো ফ্রন্ট লাইন ওয়ার্কাদের জন্য জলপাইগুড়িতে একটি ২০০ বেডের আইসোলেশন ওয়ার্ডের কাজ চলছে। খুব দ্রুত এই ওয়ার্ড চালু হবে। উত্তরবঙ্গের প্রতি জেলার ফ্রন্টলাইন ওয়ার্কার রা এখানে থাকতে পারবেন। ”

আরও পড়ুন: আইসিডিএস কেন্দ্রে শিশুদের খাদ্যসামগ্রী না দেওয়ায় বিক্ষোভ

আগামী ১৫ -ই মে থেকে রায়গঞ্জ মেডিক্যাল কলেজে কোভিড টেস্ট শুরু হবে বলেও জানান সুশান্ত বাবু। প্রতিদিন সাড়ে চারশো করে টেস্ট করা হবে এখানে। স্বাস্থ্য দফতর সূত্রে আরো জানা গিয়েছে উত্তরবঙ্গে মোট করোনা আক্রান্ত হয়েছিলেন ৯৯৫. এর মধ্যে প্রায় পঞ্চাশ শতাংশ সুস্থ হয়েছেন। ১০-ই মে পর্যন্ত কোভিড এ্যাক্টিভের সংখ্যা ৫০৭. ইতিমধ্যে উত্তরবঙ্গের বিভিন্ন জেলায় ৫৮,১৮০ জনের স্যাম্পেল স্টাডি করা হয়েছে। হোম কোয়ারেন্টাইন এ রয়েছেন ২,৮৩,১৩৩ জন।

Related Articles

Back to top button
Close