fbpx
কলকাতাহেডলাইন

সাধারণ মানুষের উদ্দেশে এক বিশেষবার্তা দিল ঢাকুরিয়া ইস্ট ক্লাব

যুগশঙ্খ ডিজিটাল ডেস্ক: করোনা আবহে এবছর উৎসবের আমেজ অন্যবারের থেকে অনেক আলাদা। সামাজিক দূরত্ব থেকে শুরু করে মাস্ক ও স্যানিটাইজার এখন মানুষের প্রয়োজনীয় অঙ্গ হয়ে উঠেছে। একদিকে মানুষ যেমন আগের থেকে অনেক সচেতন হয়ে উঠেছে তেমনি মানুষের মধ্য ঐক্যবদ্ধ চলার মানসিকতা তৈরি হয়েছে। এর মধ্যেই কালীপুজোকে সামনে রেখে এক বিশেষবার্তা দিল ঢাকুরিয়া ইস্ট ক্লাব।

অঞ্চলের নাম হালতু, ক্লাবের নাম ঢাকুরিয়া ইস্ট ক্লাব। দিনটা ছিল কালীপুজোর রাত। এখানে পুজোর আয়োজন ২৫ বছর। ঘরোয়া আবহাওয়ার মধ্যে সামাজিক দায়বদ্ধতাকে এরা ভোলে না। প্রতি বছর এরা মন্ডপ সজ্জিত করে কোন না কোন সামাজিক বার্তাকে সামনে রেখে। এবার পূর্ব কলকাতা জলাভূমির বেআইনি ভরাটের বিরুদ্ধে যে ধারাবাহিক আন্দোলন চলছে, তার ছবিসহ বিস্তারিত লেখনী নিয়ে প্রর্দশনীর দেখা মিলল এবারের কালীপুজোর আয়োজনে।

আরও পড়ুন: ভিডিও কনফারেন্সিংয়ে ‘বেঙ্গালুরু টেক সামিট ২০২০’ উদ্বোধন করবেন প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি

শ্রীমান চক্রবর্ত্তী পৌরহিত্য এই কর্মসূচিকে বাস্তবতার মুখোমুখি করিয়ে দেয় হালতুর মানুষকে। তিনি নিজেই সর্ব সময়ের সামাজিক কর্মী ও এই আন্দোলনের সঙ্গে যুক্ত। এই ভাবে ধর্মীয় আচারের ঘরোয়া আবহাওয়ার মধ্যে সর্বজনীন পুজো, সর্বজনীন মানবাধিকারের কথা মাথায় রেখেছে। এটাই বোধহয় স্থানিক বিশ্বেরই মূল্যবোধ।

Related Articles

Back to top button
Close