fbpx
পশ্চিমবঙ্গহেডলাইন

করোনা মোকাবিলায় তৎপর জেলা প্রশাসন

মিল্টন পাল, মালদা: করোনা সংক্রমন মোকাবিলায় তৎপর মালদা জেলা প্রশাসন। এরই মধ্যে মালদা রতুয়ার কাহালা এলাকায় একটি রাষ্ট্রায়ত্ত্ব ব্যাঙ্কের শাখায় বেশিরভাগ কর্মী করোনা আক্রান্ত হয়। ফলে অনির্দিষ্ট কালের জন্য ওই ব্যাঙ্কের পরিষেবা বন্ধ করে দেওয়া হয়। ব্যাঙ্কে আশা গ্রাহকদেরও চিহ্নিত করনের কাজ শুরু করেছে জেলা প্রশাসন।

টানা লকডাউনের মধ্যে সোমবার ও মঙ্গলবার সবজি বাজার বেলা ১০টা পর্যন্ত খোলা রাখার সিদ্ধান্ত নিয়েছে জেলা প্রশাসন। বুধবার বৈঠকের পর লকডাউন বাড়ানো হবে কিনা সিদ্ধান্ত নেওয়া হবে। এমত অবস্থায় শুক্রবার থেকে দুই পৌরসভা এলাকায় বাজার হাট দোকান সমস্ত কিছু বন্ধ থাকে রবিবার পর্যন্ত। এরপর সোমাবার বাজার খুলতেই উপচে পড়া ভিড় লক্ষ্য করা যায়। কিন্তু শহরের বাজারগুলিতে সামাজিক দূরত্ব বজায় রাখতে দেখা যায়নি। এমনকি কেউ কেউ বিনা মাক্সে দেদার বাজার করে চলেছে। ঘটনার খবর পেয়ে লাঠি হাতে পথে নামে ইংরেজবাজার থানার পুলিশ।

[আরও পড়ুন- লকডাউনের সুফল মিলছে উদয়নারায়ণপুরে, সংক্রমণের হার কমছে]

এদিকে সোমবার ও মঙ্গলবার লকডাউন কার্যকর করতে পথে পুলিশ মাকিং শুরু করে। মানুষকে সচেতন করে। অযথা ঘোরাঘুরির অভিযোগে বেশ কয়েকজনকে আটকও করে। ইংরেজবাজার পুর এলাকা, পুরাতন মালদা পুর এলাকায় বাড়ছে লাফিয়ে লাফিয়ে করোনা সংক্রমণ। যা প্রশাসনের কাছে মাথাব্যথার কারণ হয়ে দাঁড়িয়েছে। ইতিমধ্যে জেলায় করোনায় আক্রান্ত হয়েছে ৬৭ জন। মোট আক্রান্ত হয়েছে প্রায় ২,০০০-এর কাছাকাছি। সুস্থ হয়েছে প্রায় ১,১১৩জন।  মৃত্যু হয়েছে ৭ জনের। এই অবস্থায় আরও দুই দিনের লকডাউন ঘোষনা করেছে। কড়া পদক্ষেপ নিতে শুরু করেছে পুলিশ। চলছে শহরের ওলি-গলিত পুলিশি টহল।

জেলার পুলিশ সুপার অলোক রাজোরিয়া জানান,করোনা মোকাবিলায় পুলিশ প্রশাসন তৎপর হয়ে কাজ করছে। পাশাপাশি মাইকিং করে মানুষকে সচেতন করা হচ্ছে। বর্তমানে দুই পুরসভায় বাজার খোলার সময় সীমা বেঁধে দেওয়া হয়েছে। সময়ের বাইরে দোকান খোলা থাকলে তাদের বিরুদ্ধে কঠোর ব্যবস্থা নেওয়া হচ্ছে।

Related Articles

Back to top button
Close