fbpx
পশ্চিমবঙ্গহেডলাইন

সাপ্তাহিক লকডাউনের প্রথম দিন যথেষ্ট সাড়া পড়ল দিনহাটায়

নিজস্ব সংবাদদাতা দিনহাটা: করোনা সংক্রমণের পুলিশি তৎপরতায় সাপ্তাহিক লকডাউনের প্রথম দিন যথেষ্ট সাড়া পড়ল দিনহাটায়। বৃহস্পতিবার সকাল থেকেই দিনহাটা শহর ও আশপাশের এলাকায় ছোটখাটো কোনরকম দোকান বসতে দেয়নি পুলিশ ও প্রশাসন। যার ফলে অন্যান্য দিনের তুলনায় বৃহস্পতিবার সকাল থেকেই রাস্তাঘাট ছিল অনেকটাই শুনশান। কোথাও কোন দোকানপাট খোলা না থাকলেও শহরের বলরামপুর রোড, স্টেশন রোড সহ কয়েকটি স্থানে অস্থায়ী বাজার বসলেও পুলিশের কড়া নজরদারির ফলে অল্প সময়ের মধ্যেই বন্ধ হয়ে যায় সেই সব দোকান। এছাড়াও এদিন পুলিশ দিনহাটা শহরের প্রাণকেন্দ্র পাঁচ মাথার মোড় ছাড়াও চওড়াহাট বাজারের বিভিন্ন এলাকায় বারে বারে অভিযান চালান।

এদিন দিনহাটা থানার আইসি সঞ্জয় দত্ত, সাহেবগঞ্জ থানার ওসি হেমন্ত শর্মা, এসআই বিমান সরকার, রাজু রায়, দীপক রায় থেকে শুরু করে পুলিশের অন্যান্য আধিকারিকরা সকাল থেকেই মহকুমার বিভিন্ন স্থানে কড়া নজরদারি চালান। পুলিশের কড়া নজরদারির ফলে কার্যত জনশূন্য হয়ে পড়ে দিনহাটা। অনেকেই নানা অছিলায় একাধিক যাত্রী নিয়ে টোটো নিয়ে বের হলে পুলিশের পাশাপাশি বিভিন্ন সংগঠনের সদস্যরা সহযোগিতার হাত বাড়িয়ে দেন। এর ফলে টোটো থেকে অনেককেই নেমে যেতে হয়। কোথাও কোথাও চারজন যাত্রী নিয়ে দুই চার জন টোটো চালক রাস্তায় বের হলে তাদেরও পুলিশ আটকে দেয়।

আরও পড়ুন: নিয়মের তোয়াক্কা না করেই জনসভা খোদ মন্ত্রীর, ৭ দিন পরই কোভিড পজিটিভ

পাশাপাশি নানা অছিলায় অনেকেই বাইক নিয়ে যারা বাইরে বের হয় তাদের কেউ আটকে দেয় পুলিশ। এই রোগের হাত থেকে মানুষকে রক্ষা করতে রাজ্য সরকারের পক্ষ থেকে সপ্তাহে দুই দিন লকডাউন ঘোষণা করা হয়। প্রথম দিন লকডাউন কে সার্থক করে তুলতে পুলিশের পাশাপাশি দিনহাটায় বিভিন্ন ক্লাব ও সংগঠনের পক্ষ থেকেও নানা ভাবে সচেতনতা প্রচার চালায়। অনেকেরই বক্তব্য পুলিশ এভাবে অনেকটাই কঠিন হলে এই রোগ মোকাবেলায় সামাজিক দূরত্ব বজায় রাখা অনেকটাই সহজ হবে। সাপ্তাহিক লকডাউনের প্রথম দিন দিনহাটায় পুলিশের ভূমিকায় খুশি সাধারণ মানুষ।

Related Articles

Back to top button
Close