fbpx
গুরুত্বপূর্ণদেশহেডলাইন

স্বামীর অর্থ পাওয়ার অধিকার আছে কেবলমাত্র প্রথম পক্ষের স্ত্রীয়ের: হাইকোর্ট

যুগশঙ্খ ডিজিটাল ডেস্ক: শুধুমাত্র প্রথম পক্ষের স্ত্রী স্বামীর অর্থ দাবি করতে পারেন, এমনই জানাল হাইকোর্ট। দ্বিতীয় পক্ষের স্ত্রীর করা একটি মামলায় এই রায় বম্বে হাইকোর্ট। জানা গিয়েছে যে, মহারাষ্ট্রের আরপিএফের সাব-ইনস্পেক্টর সুরেশ হাতানকর ৩০ মে মারা যান করোনায়। রাজ্য সরকারী ওই পুলিশ কর্মীর মৃত্যুতে তিনি ক্ষতিপূরণ বাবদ ৬৫ লক্ষ টাকা পান। হাতানকরের দুই স্ত্রী ওই অর্থের দাবি করেন।

এরপর হাতানকরের দ্বিতীয় স্ত্রীয়ের মেয়ে শ্রদ্ধা বম্বে হাইকোর্টের কাছে আবেদন করেন যে, যাতে তাঁকে এবং তাঁর মাকে অনাহার ও গৃহহীনতা থেকে বাঁচাতে ক্ষতিপূরণের কিছু পরিমাণ দেওয়া হয়।  এই মামলায় বম্বে হাইকোর্ট জানিয়ে দেয় যে,
‘‌আইন অনুযায়ী হয়ত দ্বিতীয় স্ত্রী কিছুই পাবেন না। কিন্তু দ্বিতীয় পক্ষের ও প্রথম পক্ষের সন্তান ও প্রথম পক্ষের স্ত্রী এই অর্থ পেতে পারেন।’‌ বম্বে হাইকোর্টের পক্ষ থেকে বলা হয়েছে যে আইন অনুযায়ী, যদি কোনও ব্যক্তির দু’‌টি স্ত্রী থাকে এবং দু’‌জনেই স্বামীর অর্থ পাওয়ার দাবি জানান তবে শুধুমাত্র প্রথম স্ত্রী সেই অর্থ পাবেন। তবে দু’‌টি বিয়ের জন্য হওয়া তাঁদের সন্তানদের বাবার অর্থে পুরো অধিকার রয়েছে।

[আরও পড়ুন- করোনা আক্রান্ত অসমের প্রাক্তন মুখ্যমন্ত্রী তরুণ গগৈ]

সুরেশ হাতানকারের দ্বিতীয় স্ত্রীয়ের আবেদনের শুনানি ভিডিও কনফারেন্সিংয়ের মাধ্যমে হয়। সেই ভিডিও কনফারেন্সে হাতানকরের প্রথম স্ত্রী শুভদা ও মেয়ে সুরভী দাবি করেছেন যে হাতানকরের অন্য একটি পরিবার‌ আছে বলে তাঁদের জানা নেই। কিন্তু হাতানকরের দ্বিতীয় পক্ষের মেয়ে শ্রদ্ধার আইনজীবী প্রেরক শর্মা আদালতকে জানিয়ে ছিলেন হাতানকরের দুটি বিবাহের কথা জানতেন প্রথম পক্ষের স্ত্রী।  এমনকি আইনজীবী এও জানিয়েছিলেন যে, হাতানকর তাঁর দ্বিতীয় পক্ষের স্ত্রী ও মেয়ের সঙ্গেই থাকতেন ধারাভিতে রেল পুলিশের আবাসনে। উল্লেখ্য, ১৯৯২ সালে হাতানকরের প্রথম বিয়ে হয় এবং ১৯৯৮ সালে দ্বিতীয় বিয়ে হয়। জানা গিয়েছে দুটি বিয়েই তিনি আইনতই করেছিলেন। হিন্দু বিবাহ আইন মেনে সম্পন্ন হয় দুটি বিয়ে।

Related Articles

Back to top button
Close