fbpx
পশ্চিমবঙ্গহেডলাইন

কয়েকদিনের বৃষ্টিতে ধসে পড়েছে দিনহাটা রেল স্টেশনের প্লাটফর্মের ওভারব্রিজের পিলারের মাটি

নিজস্ব সংবাদদাতা, দিনহাটা: কয়েকদিনের বৃষ্টিতে ধসে পড়েছে দিনহাটা রেল স্টেশনের প্লাটফর্মের ওভারব্রিজের পিলারের মাটি। এরফলে বিপদজনক চেহারা নিয়েছে এলাকা। সব ট্রেন চালুর আগেই অবিলম্বে ধসে যাওয়া ওই এলাকা নতুন করে সংস্কারের দাবি তুলেছেন রেলযাত্রীদের পাশাপাশি বিভিন্ন সংগঠন। মাস কয়েক আগেই স্টেশনের দুই  প্ল্যাটফর্মের মাঝে এই ওভার ব্রিজ এর সূচনা হয়। দীর্ঘ আন্দোলনের পর এই ওভারব্রিজ চালু হলেও বৃষ্টিতে পিলারের একটি অংশের মাটি ধসে যাওয়ায় প্রশ্ন উঠেছে সঠিক কাজ নিয়েও। অবিলম্বে নতুন করে সংস্কারের পাশাপাশি কাজের মান খতিয়ে দেখার দাবি উঠেছে।

পাশাপাশি দিনহাটা ও বামনহাট স্টেশন থেকে শিলিগুড়ি পর্যন্ত প্যাসেঞ্জার ট্রেনগুলিকে পুনরায় চালুর দাবি উঠেছে। এই ট্রেনগুলি চলাচল শুরু হলে যেকোনও সময় দুর্ঘটনা ঘটার আশঙ্কা করছেন অনেকে। দিনহাটা স্টেশনের ওভারব্রিজ দিয়ে প্রতিদিন রেল যাত্রীরা যাতায়াত করে থাকেন। দিনহাটা মহকুমা ব্যবসায়ী সমিতি, ব্যবসায়ী কল্যাণ সমিতি, দিনহাটা নাগরিক মঞ্চ  সহ বিভিন্ন সংগঠনের পক্ষ থেকে উত্তরবঙ্গ এক্সপ্রেস সহ প্যাসেঞ্জার ট্রেন গুলিকে পুজোর আগেই চালু করার জন্য ইতিমধ্যে রেল কর্তৃপক্ষের কাছে দাবি জানান হয়।

[আরও পড়ুন- বেহাল রাস্তা সারাইয়ের দাবিতে গ্রামবাসীদের বিক্ষোভ]

রেলযাত্রীদের স্বার্থে দিনহাটা স্টেশনের দুই প্ল্যাটফর্মের মাঝে ওভারব্রিজ নির্মাণের জন্য বিভিন্ন সংগঠনের পক্ষ থেকে রেল কর্তৃপক্ষের কাছে দাবি জানানো হয়। সেই দাবি অনুযায়ী তৈরি হয় ওভারব্রিজ। মাস কয়েক আগেই চালু হয় ওভারব্রিজ। নবনির্মিত ওভারব্রিজের পিলারের নীচের থেকে মাটি ধসে যাওয়ায় ক্ষোভ প্রকাশ করেন অনেকেই। দিনহাটা স্টেশন  কর্তৃপক্ষ অবশ্য জানান, বিষয়টি ঊর্ধ্বতন কর্তৃপক্ষকে জানানো হয়েছে।

দিনহাটা মহকুমা ব্যবসায়ী কল্যাণ সমিতির সম্পাদক উৎপলেন্দু রায় বলেন, করোনা  আবহে বিভিন্ন ট্রেন বন্ধ রয়েছে। সেই ট্রেনগুলি চালুর আগেই রেলযাত্রীদের স্বার্থে ওভারব্রিজের ধসে যাওয়া পিলারের মাটি অবিলম্বে ঠিক করে নতুন করে সংস্কারের দাবি তোলেন তিনি।

দিনহাটা মহকুমা ব্যবসায়ী সমিতির সম্পাদক রানা গোস্বামী বলেন,”বর্তমানে করোনা আবহে দিনহাটা থেকে সবরকম ট্রেন চলাচল বন্ধ রয়েছে। এর ফলে যাত্রীদের আনাগোনা নেই। ইতিমধ্যে উত্তরবঙ্গ এক্সপ্রেস সহ প্যাসেঞ্জার ট্রেন গুলি চালানোর জন্য তারা রেল কর্তৃপক্ষের কাছে দাবি জানিয়েছেন। ফের ট্রেন চলাচল শুরু হলে যাত্রীদের যাতায়াত বাড়বে। তাই আগে থেকেই ওভার ব্রিজের পিলারের নিচের ধসে যাওয়া অংশ নতুন করে ঠিক করার জন্য নজর দেওয়া উচিত।”

দিনহাটা নাগরিক মঞ্চের সম্পাদক জয়গোপাল ভৌমিক,জনজাগরণ মঞ্চের সম্পাদক হিটলার দাস প্রমুখ  বলেন, “একটানা কয়েকদিন বৃষ্টি হয়েছে ঠিকই। তবে স্টেশনের ভিতর দুই প্ল্যাটফর্মের মাঝে ওভারব্রিজের একটি অংশের পিলারের নীচের দিক থেকে যেভাবে মাটি ধসে পড়েছে তাতে কাজের মান নিয়ে প্রশ্ন থাকা স্বাভাবিক।” বিষয়টি নিয়ে দিনহাটা স্টেশনের ভারপ্রাপ্ত আধিকারিক মণীশ কুমার বলেন,”গত কয়েকদিনের টানা বৃষ্টিতে ওভারব্রিজের পিলারের নীচের মাটি ধসে পড়েছে। বিষয়টি উর্দ্ধতন কর্তৃপক্ষকে জানিয়েছি।”

 

Related Articles

Back to top button
Close