fbpx
গুরুত্বপূর্ণদেশহেডলাইন

লাভ জিহাদ রুখতে এবার আইন করার জন্য তিন সদস্যের খসড়া কমিটি গঠন করল হরিয়ানা সরকার

যুগশঙ্খ ডিজিটাল ডেস্ক: ‘লাভ জিহাদ’ নিয়ে ভারতে বিতর্ক নতুন কিছু নয়। তারই মধ্যে তানিশকের বিজ্ঞাপন এবং হরিয়ানায় এক কলেজ ছাত্রীর খুনের ঘটনার পরই ‘লাভ জিহাদ’ বিতর্ক আরও বাড়তে থাকে। এই অবস্থায় মধ্যপ্রদেশের স্বরাষ্ট্রমন্ত্রীর দাবি, দুই ধর্মের মধ্যে বিয়েতে কোনও আপত্তি নেই বিজেপি সরকারের। নয়া বিলের মাধ্যমে শুধুমাত্র ‘লাভ জিহাদ’-র বিরুদ্ধে কঠোর পদক্ষেপ গ্রহণ করা হবে। তবে কেউ যদি বিয়ের জন্য নিজের ধর্ম পরিবর্তন করতে চান, তাহলে বিয়ের একমাস আগে জেলাশাসককে সে বিষয়ে জানাতে হবে।

এমনকী মধ্যপ্রদেশ সরকার ‘লাভ জিহাদ’ করলে ১০ হাজার টাকা শাস্তির বিধানের কথা যখন জানিয়েছে, তখন লাভ জিহাদ রুখতে আইন করার জন্য হরিয়ানা সরকার তিন সদস্যের খসড়া কমিটি গঠন করল। বৃহস্পতিবার হরিয়ানার স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী অনিল বিজ ঘোষণা করেছেন হরিয়ানায় ‘লাভ জিহাদ’ সম্পর্কিত আইন গঠনের জন্য তিন সদস্যের খসড়া কমিটি গঠন করা হয়েছে।

হরিয়ানার স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী অনিল বিজ টুইট করে জানিয়েছেন, হরিয়নার স্বরাষ্ট্র সচিব টি এল সত্যপ্রকাশ (আইএএস), এডিজিপি নবদীপ সিং ভিরক (আইপিএস) এবং অতিরিক্ত অ্যাডভোকেট জেনারেল দীপক মনছন্দ-এর সমন্বয়ে গঠিত কমিটি অন্যান্য রাজ্যের লাভ জিহাদ আইন নিয়ে আলোচনা করবেন, যাতে হরিয়ানায় কীভাবে আইন করা যায়।

সম্প্রতি উত্তরপ্রদেশের স্বরাষ্ট্র দফতর ‘লাভ জিহাদ’-এর বিরুদ্ধে কঠোর আইন তৈরি করার জন্য সেই রাজ্যের আইন বিভাগকে একটি প্রস্তাব পাঠিয়েছে। ‘লাভ জিহাদ’ নিয়ে এলাহাবাদ হাইকোর্টের রায়ের পর উত্তরপ্রদেশের মুখ্যমন্ত্রী যোগী আদিত্যনাথ জোর করে ধর্মীয় ধর্মান্তকরণ রোধে ‘লাভ জিহাদ’ প্রসঙ্গে কঠোর আইন আনবে। যদিও এ বছরের ৪ ফেব্রুয়ারি কেন্দ্রীয় স্বরাষ্ট্র মন্ত্রক স্পষ্ট জানিয়ে দিয়েছিল যে ‘লাভ জিহাদ’ নিয়ে আইনে পরিষ্কার কিছু নেই।

তবে, বুধবার মধ্য প্রদেশের বিজেপি নেতৃত্বাধীন শিবরাজ চৌহান সরকার বলেছে, যদিও কাউকে বিয়ে করার জন্য ধর্ম পরিবর্তন করতে বাধ্য করা হয় তাহলে দোষী সাব্যস্ত হলে তার দশ বছরের কারাদণ্ডের প্রস্তাব আনা হচ্ছে। দোষীদের ফৌজদারি অপরাধের দায়ে দুষ্ট করা হবে বলেও জানানো হয়।

আরও পড়ুন: দিল্লি হিংসায় উস্কানি দেওয়ার অভিযোগ উমর খালিদের বিরুদ্ধে, দাবি অতিরিক্ত চার্জশিটে

উল্লেখ্য, ভারতীয় সংবিধানের “লাভ জিহাদ” সম্পর্কিত কোনও আইন নেই। বিজেপি প্রথম সংসদে এই বিষয়টি উল্লেখ করে। বিজেপি শাসিত রাজ্য গুলি ইতিপূর্বে বহুবার “লাভ জিহাদ” এর বিরুদ্ধে সরব হয়েছে। এবার তারা “লাভ জিহাদ”কে আইনগতভাবে অপরাধ হিসেবে চিহ্নিত করে সেই অপরাধের বিরুদ্ধে নির্দিষ্ট শাস্তি নির্ধারণ করতে চলেছে। সূত্রের খবর, মধ্যপ্রদেশের শিবরাজ সিং চৌহানের সরকার “লাভ জিহাদ” এর বিরুদ্ধে শাস্তি আরোপ করতে “ধর্মীয় স্বাধীনতা বিল, ২০২০” আনতে চলেছে।

Related Articles

Back to top button
Close