fbpx
গুরুত্বপূর্ণদেশহেডলাইন

হৃদযন্ত্র স্থিতিশীল, তবুও সঙ্কটেই প্রণব মুখোপাধ্যায়

যুগশঙ্খ ডিজিটাল ডেস্ক: রক্তচাপ স্থিতিশীল। কাজ করছে হৃদযন্ত্র। তবে সঙ্কট এখনও কাটেনি প্রাক্তন রাষ্ট্রপতি প্রণব মুখোপাধ্যায়ের। এখনও ভারতের প্রাক্তন রাষ্ট্রপতিকে রাখা হয়েছে দিল্লির সেনা হাসপাতালের ভেন্টিলেশনে। তবে তাঁর শারীরিক পরিস্থিতিত আপাতত স্থিতিশালী। ট্যুইট করে জানালেন প্রণব পুত্র তথা কংগ্রেস নেতা অভিজিত মুখোপাধ্যায়। বুধবার রাতে অভিজিত্‍ মুখোপাধ্যায় ট্যুইট করেন, ‘আপনাদের সকলের প্রার্থনায় আমার বাবা এই মুহূর্তে হেমোডাইনামিক্যাল প্রেক্ষিতে স্থিতিশীল রয়েছেন। তাঁর দ্রুত আরোগ্য লাভের জন্য আপনাদের নিরন্তর প্রার্থনা ও শুভাকাঙ্খার জন্য অনুরোধ জানাচ্ছি। ধন্যবাদ।’

সোমবার দিন তাঁর অস্ত্রোপচার হওয়ার পরেই চিকিত্‍সকরা জানিয়েছিলেন প্রণববাবুর শারীরিক অবস্থা পর্যবেক্ষণের জন্য ৯৬ ঘণ্টা চাই। এ দিন অর্থাত্‍ বৃহস্পতিবার সেই ৯৬ ঘণ্টা পূর্ণ হবে। বুধবার দুপুরে দিল্লি ক্যান্টনমেন্টের রিসার্চ অ্যান্ড রেফারেল হাসপাতালের বুলেটিনে জানানো হয়, প্রণববাবুর শারীরিক অবস্থার উন্নতি হয়নি। এখনও তিনি সঙ্কটজনক অবস্থায় ভেন্টিলেশনে রয়েছেন। তাঁর রক্তচাপ এবং হৃদকম্পন স্থিতিশীল রয়েছে।

রবিবার রাতে বাথরুমে পড়ে গিয়েছিলেন প্রাক্তন রাষ্ট্রপতি। সোমবার সকালে ডান হাত অবশ হতে থাকায় দ্রুত প্রণব মুখোপাধ্যায়কে হাসপাতালে নিয়ে যাওয়া হয়। সেখানে মস্তিষ্কে রক্ত জমাট বেঁধে যাওয়ায় চিকিত্‍সকরা অপারেশনের সিদ্ধান্ত নেন। অপারেশনের আগে করোনা পরীক্ষায় পজিটিভ রিপোর্ট আসে। হাসপাতালের তরফে জানানো হয়, অপারেশনের মাধ্যমে ওই জমাট বাঁধা রক্ত বের করে আনা সম্ভব হয়েছে। কিন্তু কোনও মতেই রক্তক্ষরণ না কমায় নতুন করে জটিলতা তৈরি হয়। সূত্রের খবর, রক্ত তঞ্চন বন্ধ করার ওষুধ খান প্রাক্তন রাষ্ট্রপতি। তার জেরেই ক্ষতস্থানের রক্তক্ষরণ বন্ধ করতে সমস্যা হচ্ছে।

আরও পড়ুন: রামমন্দির ঘিরে গোটা বিশ্বে ঐক্যবদ্ধ হচ্ছে হিন্দুরা!

হাসপাতালের ওই বুলেটিনের পরই প্রণব-কন্যা শর্মিষ্ঠা মুখোপাধ্যায় এক আবেগঘন ট্যুইট করেন,লেখেনে, বাবার জন্য যেটা সবচেয়ে ভালো সেটাই করুন ঈশ্বর। শর্মিষ্ঠার ওই ট্যুইটের পরেই আশঙ্কা তৈরি হয়েছিল বিভিন্ন মহলে। অসুস্থ নেতার দ্রুত আরোগ্য কামনা করে সোশ্যাল মিডিয়ায় অসংখ্য মানুষ প্রার্থনা ও শুভ কামনা জানাতে থাকেন। প্রণববাবুর সুস্থতার জন্য কীর্ণাহার এলাকায় বিশেষ যজ্ঞের ব্যবস্থাও করা হয়। তবে রাতে পুত্র অভিজিতের টুইট কিছুটা আশার আলোর দেখা মেলে।

 

 

Related Articles

Back to top button
Close